কিসমৎ নাইকুন্ডি অঞ্চল তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে পঞ্চায়েত এলাকার নিরন্ন মানুষের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিলি।

0
112

মহিষাদল-পূঃ মেদিনীপুর, নিজস্ব সংবাদদাতাঃ – অসহায় গরীব পরিবারে পাশে দাঁড়াল পূঃ মেদিনীপুর জেলার মহিষাদলের কিসমৎ নাইকুন্ডি অঞ্চল। সারা বিশ্বে প্রায় সব দেশে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়েছে ।কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে লকডাউন ঘোষণা করেছেন ।প্রয়োজন ছাড়া কেউ বাইরে বের হচ্ছে না ।এই অবস্থায় বেশি অসুবিধায় পড়েছে যারা দিন আনে দিন খাই মানুষেরা। হাতে টাকা – পয়সা নেই, সংসার চালাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। কিন্তু লকডাউন পিরিয়ডে কোনো মানুষের যাতে অসুবিধা না হয় তার জন্য আমাদের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় একাধিক প্রকল্প ঘোষনা করেছেন। বিভিন্ন মাধ্যম দিয়ে প্রতিটি *দুঃস্থ* মানুষের কাছে পৌঁছে যাচ্ছে ত্রাণ। তাঁর অনুপ্রেরনায় অনুপ্রানিত হয়ে এগিয়ে এসেছে একাধিক ক্লাব, সমাজসেবী সংগঠন গুলি। ব্যাক্তিগত ভাবেও সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন অনেকেই। আজ বৃহস্পতিবার পূঃ মেদিনীপুর জেলার মহিষাদল ব্লকের কিসমৎ নাইকুন্ডি অঞ্চলের উদ্যোগে ৫০০ টি দুঃস্থ অসহায় গরীব পরিবার’কে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিল অঞ্চল কর্মীরা। অঞ্চল সদস্য প্রলাপ মিশ্র-এর নেতৃত্বে আজ সকাল থেকেই শুরু হয়েছে এই কর্মসূচি। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে আজ এলাকার ও এলাকার বাহিরের বেশ কয়েক টি পরিবারে চাল, ডাল, ও অন্যান্য খাদ্য দ্রব্য বিতরণ করা হয়। ।প্রলাপ বাবু বলেন… ”আমরা কিসমৎ নাইকুন্ডি গ্রাম পঞ্চায়েত থেকে ৫০০ জনকে ত্রাণ দিয়েছি। এছাড়া ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে প্রায় ২০০জনের হাতে ত্রাণ তুলে দিতে পেরেছি । এছাড়া স্পেশাল জি আর থেকে শুরু করে মোটামুটি প্রায় হাজার পরিবারকে ত্রাণ দিয়েছি। এবং আগামি দিনে এই লকডাউন যত দিন চলবে সেই লকডাউন পিরিয়ডে যারা দুঃস্থ পরিবার তাদেরকে আমরা বিভিন্নভাবে ত্রাণ পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করব। পাশি বাইরের অঞ্চলের বেশ কিছু জনের হাতেও আমরা ত্রাণ তুলে দিতে পেরেছি বলে তিনি জানান”। পাশাপাশি তিনি লকডাউনে প্রতিটি মানুষকে সচেতন ভাবে থাকার জন্য অনুরোধ জানান। এদিনের কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন,  দেবব্রত চক্রবর্তী (উপপ্রধান), প্রলাপ মিশ্র (কার্যকরী সভাপতি, কিসমৎ নাইকুন্ডি অঞ্চল তৃণমূল কংগ্রেস ও সঞ্চালক শিক্ষা ও জন স্বাস্থ্য উপসমিতি), মনোরঞ্জন  মাইতি (সহ-সভাপতি, ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস), রসিদ আলি (সভাপতি, লক্ষ্যা-২নং বুথ), রনজিৎ কুমার মন্ডল (সদস্য, কিসমৎ নাইকুন্ডি গ্রাম পঞ্চায়েত), নটরাজ দাস (কার্যকারী সভাপতি, গোপালপুর-২নং বুথ) সহ এছাড়াও অনেকে। সর্বপরি, কিসমৎ নাইকুন্ডি গ্রাম পঞ্চায়েতের এর এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন সকলস্তরের মানুষ।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here