কাঁথি-মেছাদা বাইপাসে অবস্থান-বিক্ষোভ ও কাঁথি SDPO ও IC র কাছে ডেপুটেশন জমা দেওয়া হয় বিজেপি নেতৃত্বের তরফ থেকে।

0
158

নিজস্ব সংবাদদাতা, পূর্ব মেদিনীপুর:-গত রবিবার পূর্ব মেদিনীপুর জেলার খেজুরী থানার খেজুরীর 2 নং ব্লকের নীচকসবা অঞ্চলের গোড়াহাট জলপাই এলাকায় বিজেপি তৃণমূল সংঘর্ষ বিজেপির জেলা সম্পাদক পবিত্র দাস এর হাতে গুলি লেগে গুরুতর আহত হয়। পুরো ঘটনার অভিযোগের তীর ছিল তৃণমূলের দিকে। তারই প্রতিবাদে সোমবার কাঁথি-মেছাদা বাইপাসে অবস্থান-বিক্ষোভ ও কাঁথি SDPO ও IC র কাছে ডেপুটেশন জমা দেওয়া হয় বিজেপি নেতৃত্বের তরফ থেকে। মূলত দাবিগুলো হলো, অবিলম্বে দুষ্কৃতিকারীদের গ্রেফতার করতে হবে, খেজুরি শহ সারা জেলায় যেসব বেআইনি আগ্নেয়াস্ত্র রয়েছে দুষ্কৃতিকারীদের সেগুলো কে অবিলম্বে উদ্ধার করতে হবে,এইসব একাধিক দাবি-দাওয়া নিয়ে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।
এই দিন এই কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন ঝাড়গ্রাম লোকসভার সাংসদ কুনার হেমব্রম, কাঁথি সাংগঠনিক জেলা সভাপতি অনুপ চক্রবর্তী, স্টেট কাউন্সিল মেম্বার অমলেন্দু পাহাড়ি তাছাড়া জেলার একঝাঁক জেলা নেতৃত্ব ও কর্মী সমর্থকবৃন্দ। এর পাশাপাশি সমগ্র জেলা জুড়ে চলছে বিজেপির প্রতিবাদ মিছিল। এছাড়াও মেচেদা ও এগরায় রাজ্য বিজেপির যুব মোর্চার সভাপতি ও সাংসদ সৌমিত্র খাঁ’ উপস্থিতিতে প্রতিবাদ মিছিল করা হয়। এই দিন সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে সংসদ সৌমিত্র খাঁ নাম না করে কার্যত রাজ্য সরকারকে কটাক্ষ করেন,তিনি বলেন সারা রাজ্যেই পিসি ভাইপো কে আর দেখতে চাইছে না সাধারণ মানুষ,সেখানে বিজেপিকে ক্ষমতায় চাইছে, তার জন্যই দার্জিলিং থেকে শুরু করে সমগ্র রাজ্যে বিজেপির উপর অত্যাচার চলছে, কয়েকদিন আগে বিজেপি সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু কে পথ আটকে ছিল পুলিশ সেই সাপেক্ষে সৌমিত্র খাঁ বলেন পুলিশ হচ্ছে এখন পিসি-ভাইপোর দলদাস। পুলিশ এখন ওদের জমিদারির লেটাল বাহিনীর মতো কাজ করছে, গণতান্ত্রিকভাবে আমাদেরও রাস্তায় হাঁটার অধিকার আছে। ওরা যদি পথ আটকায় আটকাবে।মূলত এক কথায় বলা যেতে পারে বিধানসভা ভোট যত এগিয়ে আসছে রাজনৈতিক পারদ ঊর্ধ্বমুখী তা বলা বাহুল্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here