ঘাটালে ঝুমি নদীর উপর শিলান্যাস করলেন রাজ্যের পঞ্চায়েত দপ্তরের মন্ত্রী সুব্রত মুখার্জি।

0
61

নিজস্ব সংবাদদাতা পশ্চিম মেদিনীপুরঃ-ঘাটাল মহকুমা বাসিন্দাদের দীর্ঘদিনের একটি স্বপ্ন বাস্তবায়িত হতে চলেছে যার শুক্রবার শুভ সূচনা করলেন রাজ্যের পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন দপ্তরের মন্ত্রী সুব্রত মুখার্জি। শুক্রবার পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার ঘাটাল ব্লকের মনশুকা এলাকায় ঝুমি নদীর উপর সেতু তৈরির আনুষ্ঠানিক সূচনা করলেন রাজ্যের পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখার্জি। রাজ্যের পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখার্জি সেতু তৈরির সঙ্গে সঙ্গে শুরু হয়েছে সেতু তৈরির কাজ। সেতুর জন্য ১৫ কোটি ৭৩ লক্ষ ৯৯ হাজার টাকা বরাদ্দ হয়েছে। ঘাটাল ব্লকের এক প্রান্তে রয়েছে হুগলি জেলা লাগুয়া ঘাটাল ব্লকের বেশ কয়েকটি গ্রাম। ওই গ্রামের মানুষকে সারাবছর ঘাটাল শহরে আসতে তাদের প্রচুর দুর্ভোগ পোহাতে হয়।সেতু না থাকায় নদীতে যখন কম জল থাকে তখন একটি বাঁশের সাঁকো বানানো হয়। বন্যার সময় নৌকায় পার হতে হয় ।নদীর এক পাড়ে মনশুকা হাইস্কুল রয়েছে।ওই স্কুলের ছাত্র-ছাত্রী শিক্ষক-শিক্ষিকার বাড়ি রয়েছে স্কুলের বিপরীত পাড়ে। তাই ওই স্কুলের ছাত্র-ছাত্রী এবং শিক্ষক-শিক্ষিকাদের স্কুলে যাতায়াত করতে ঝুমি নদী পেরিয়ে। বন্যার সময় ছাত্র-ছাত্রীদের নৌকায় যাতায়াত করতে হয়। যার ফলে ব্যাপক সমস্যার মধ্যে পড়তে হয়।পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন দপ্তর সেতু তেরি করার কাজ শুরু করায় খুশি ওই এলাকার সকলেই। মন শুকায় ঝুমি নদীর উপর সেতু টি তৈরি হলে হুগলি লাগুয়া পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার ঘাটাল ব্লকের কিশোরচক, রসিকপুর, দৌলত চক, বন হরিসিংহপুর ,তুলসীরামপুর সহ বেশ কয়েকটি গ্রামের চাষিরা বিশেষভাবে উপকৃত হবেন। কারন তারা খুব সহজেই ঘাটাল শহরে তাদের জিনিসপত্র বিক্রি করতে যেতে পারবে। সেতু নির্মাণের সূচনা হওয়ায় খুশি এলাকার সর্বস্তরের মানুষ। ঘাটাল পঞ্চায়েত সমিতির সহ সভাপতি তথা তৃণমূলের ঘাটাল ব্লক সভাপতি দিলীপ কুমার মাজি বলেন সেতুটি ১২৯ মিটার লম্বা এবং সাড়ে সাত মিটার চওড়া হবে। তিনি বলেন শুধু আনুষ্ঠানিকভাবে কাজের সূচনা নয় শুক্রবার থেকেই কাজ একটানা চলবে। ২০২২ সালের এপ্রিল মাসের মধ্যে সেতু তৈরির কাজ শেষ হয়ে যাবে। ঘাটালের বিধায়ক শংকর দোলাই বলেন ২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে দাঁড়ানোর সময় কথা দিয়েছিলাম এলাকার মানুষের দাবি মত ঝুমি নদীর উপর সেতু নির্মাণের কাজ করার ব্যবস্থা করব । রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে আমি সেতুটি তৈরির দাবি রেখেছিলাম সেই দাবি পূরণ হয়েছে ।এই জন্য পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন দপ্তর প্রয়োজনীয় অনুমতি মিলেছে যার ফলে এলাকার বাসীদের দীর্ঘদিনের দাবি পূরণ হলো। ঝুমি নদীর উপর ঘাটালের মনশুকা এলাকায় সেতু তৈরির সূচনা করে রাজ্যের পঞ্চায়েত দপ্তরের মন্ত্রী সুব্রত মুখার্জি বলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় উন্নয়ন ও শান্তি ছাড়া অন্য কিছুই জানেন না। তাই তিনি কথা দিয়ে কথা রাখেন ।এলাকার বিধায়ক শংকর দোলাই কে তিনি বলেছিলেন সেতু তৈরির বিষয়টি দেখে নেবেন। তাই মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে এই সেতুটি তৈরি করার কাজ শুরু হয়েছে। এই এলাকার বাসিন্দাদের দীর্ঘদিনের দাবি পূরণ হওয়ায় তিনি খুশি বলে জানান। সেই সঙ্গে তিনি বলেন রাজ্যের মা মাটি মানুষের সরকার মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দেয় না, যে প্রতিশ্রুতি দেয় সেই প্রতিশ্রুতি বাস্তবে রুপায়ন করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here