মানিকপুর খেয়াঘাটে ভাড়া বৃদ্ধির প্রতিবাদে যাত্রী বিক্ষোভের জেরে নৌকা চলাচল বন্ধ ।

0
1009

প্রকাশ কালি ঘোষাল, হাওড়া :- সাঁকরাইল থানার অন্তর্গত মানিকপুর টু আক্রা ফেরি সার্ভিস বহু পুরনো দিনের, সেই দাঁড় টানা টানা নৌকা থেকে শুরু, কালের পরিবর্তে সঙ্গে সঙ্গে পরিবর্তনের হাওয়া লেগে বর্তমানে ভটভটি চালিত নৌকায় রূপান্তরিত হয়েছে এই খেয়া ঘাটের নৌকা । যাত্রী পরিষেবার উন্নতি তেমন চোখে পড়ে না বললেই চলে। আগের মত যাত্রীদের এক হাটু কাদা জলে নেমে ভাটার সময় নৌকা উঠতে হয় এখনও । মহামারি করোনা ভাইরাসের দাপটের সময় সোশ্যাল ডিসটেন্স মেনে নৌকা চলাচল করার জন্য জনসাধারণের কাছে অঙ্গীকার করে ৪ টাকার ভাড়ার পরিবর্তে ১০ টাকা করে খেয়াঘাটের মালিক সুবল সামন্ত এমন অভিমত সাঁকরাইল পঞ্চায়েত সমিতির সদস্যের। বর্তমানে করোনার দাপট কমে যাওয়ার ফলে আগের মতন কম যাত্রী পরিবর্তে অধিক যাত্রী বহন করছে ঘাট মালিক। কিন্তু ভাড়ার কোন পরিবর্তন না করে বাড়তি ভাড়া দিতে হচ্ছিল যাত্রীদের তারই পরিপ্রেক্ষিতে যাত্রীদের মধ্যে ক্ষোভ বারছিল। সেই ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ হলো খেয়া বন্ধের মাধ্যমে। যাত্রীদের মতামতের সহিত এলাকার তৃণমূল নেতৃত্বে সহমত থাকায় বিক্ষোভ ব্যাপক আকার ধারণ করে। এক প্রশ্নের উত্তরে সমিতির সদস্য বললেন “আমরা থানা, বিডিও এবং নবান্ন যেখানে যাবার সেখানে দরখাস্ত করেছি যাত্রী পরিষেবার স্বার্থে, যাতে ন্যূনতম ভাড়া চার টাকা আবার ফিরে আসে তারই দাবিতে আমরা সাধারণ মানুষের পাশে আছি এবং থাকব। আমাদের দীর্ঘদিনের দাবিকে মান্যতা দিয়ে তৃণমূল পরিচালিত মা মাটি মানুষের সরকার এর নেত্রী মমতা ব্যানার্জির অনুপ্রেরণায় জেটি হচ্ছে সেই জেটির কাজ খুব তাড়াতাড়ি শেষ পর্যায়ে এসে পৌঁছেছে আমরা চাই এই জেটি তে লঞ্চ তাড়াতাড়ি চালু হোক এবং যাত্রীদের দীর্ঘদিনের দুর্ভোগ তবেই কমবে”।এখন দেখার যাত্রীদের কথা বিবেচনা করে ঘাট মালিক কি তার ভাড়া কমাবে ? নাকি ১০ টাকা ভাড়া রেখে ঘাট মালিক যাত্রীদের সঙ্গে বিবাদে জড়াতে চান ? এখন সেই দিকেই তাকিয়ে আছে নিত্যযাত্রী ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here