কংগ্রেসের জেলা মিটিংয়ে উত্তপ্ত। চরম হেনস্তার শিকার জেলা সভাপতিসহ নেতৃত্বরা,জেলা সভাপতি সহ জেলার নেতৃত্বদের গায়ে ছেটানো হলো কালী।

0
212

নিজস্ব সংবাদদাতা,পূর্ব মেদিনীপুর:-কংগ্রেসের জেলা মিটিংয়ে উত্তপ্ত। চরম হেনস্তার শিকার জেলা সভাপতিসহ নেতৃত্বরা,জেলা সভাপতি সহ জেলার নেতৃত্বদের গায়ে ছেটানো হলো কালী,স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, পূর্ব মেদিনীপুর জেলার কোলাঘাটের ব্লক সভাপতি সাবির হোসেনের বিরুদ্ধে দল বিরোধী কার্যকলাপ সহ একাধিক অভিযোগ নিয়ে এদিন একটি বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছিল তমলুকের জেলা পার্টি অফিসে সামনে একটি সভাগৃহে।এইদিন সকালে এই বৈঠক শুরু হয়েছিল। সভাগৃহ উপস্থিত ছিলেন জেলা নেতৃত্ব এর পাশাপাশি বিভিন্ন ব্লক থেকে আসা প্রায় জনা পঞ্চাশেক নেতাকর্মী। কিছুক্ষণ বৈঠক চলার পর আচমকাই সেখানে হামলা চালায় কোলাঘাটের দলীয় কিছু বিক্ষুব্ধ কর্মী-সমর্থক। অভিযোগ প্রায় ২০ জন সদস্যের এই বিক্ষোভকারীরা জাতীয় কংগ্রেস জিন্দাবাদ এবং সেইসঙ্গে সাবির হোসেন জিন্দাবাদ এই ধ্বনি তুলে সভাগৃহে প্রবেশ করে এবং সেখানেই জেলা নেতৃত্বকে তীব্র হেনস্থা করা হয় বলে অভিযোগ। তখনই জেলা নেতৃত্ব কে লক্ষ্য করে নীল কালি ছিটিয়ে দেওয়া হয় উত্তেজিত কংগ্রেস সমর্থকরা। জেলা কংগ্রেস সভাপতি মানষ কর মহাপাত্র জানান কোলাঘাটের ব্লক সভাপতি বিধানসভা ভোটে নির্দল হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন সামির হোসেন।

তাই আমরা আজ জেলা কমিটির মিটিং দেখে তাকে দল থেকে বরখাস্ত করার জন্য মিটিং ডাকা হয়েছিল। সেই মিটিং চলাকালীন সামির হোসেন এর অনুগামীরা এসে হেনস্থা করে আমাদের। ঘটনার সমস্ত কিছু রাজ্য নেতৃত্ব কে জানানো হবে। যদিও সামির হোসেন বক্তব্য আমি কিছুই জানি না, মিটিং হবে বলে তাও জানিনা,আমাকে ডাকা হয়নি। তবে আমার অনুগামীরা কেউ ওখানে উপস্থিত হয়নি। আমাকে চক্রান্ত করে আমাকে ব্লক সভাপতির পদ থেকে সরানোর চক্রান্ত করছে ওরা। তবে হারিয়ে যাওয়া কংগ্রেস দলের কর্মী সম্মেলনে গোষ্ঠী কোন্দল প্রকাশ্যে চলে এসেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here