বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙ্গার প্রমাণ লোপাট করছে দিদির সরকার: মোদি।

Spread the love

নিজস্ব সংবাদদাতা, মথুরাপুরঃ- — মঙ্গলবার কলকাতায় অমিত শাহ এর রেল চলার সময় বিবেকানন্দ কলেজ ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙা দুষ্কৃতীরা। সেই ঘটনায় নাম জড়ায় বিজেপির। যদিও বিজেপির তরফ থেকে অভিযোগ করা হয় তৃণমূলের লোকেরাই বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভেঙেছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে দক্ষিণ ২৪ পরগনা মথুরাপুর নির্বাচনী জনসভায় এসে এ বিষয়ে মুখ খুললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি দাবি করেন তালা বন্ধ ঘরে কাঁচের বাক্সের মধ্যে থাকা বিদ্যাসাগরের মূর্তি কিভাবে বাইরে এল? সেই ঘরে লাগানো সিসিটিভি ফুটেজ কোথায় গেল? ভোটের রাজনীতির জন্য আসল প্রমান লোপাট করেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তার সরকার। তিনি ও অপরাধীদের কঠোর শাস্তি চান বলে দাবি করেন। এর পাশাপাশি এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তার সরকারকে কড়া সমালোচনা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বৃহস্পতিবার বিকেলে মথুরাপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী শ্যামাপ্রসাদ হালদার এর সমর্থনে নির্বাচনী জনসভা করতে আসেন মোদি। মোদির এই নির্বাচনী জনসভা কে কেন্দ্র করে বিজেপি কর্মী সমর্থকদের উৎসাহ ছিল চোখে পড়ার মতো। প্রচুর মানুষ এদিন এসেছিলেন প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য শোনার জন্য। নরেন্দ্র মোদী ছাড়াও এদিন সভা মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায় সহ কেন্দ্র ও রাজ্যের অন্যান্য বিজেপি নেতৃত্ব।

এদিন ও নরেন্দ্র মোদি মঞ্চে বক্তব্য রাখার সময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তার সরকারকে তোলাবাজি ও সিন্ডিকেটের সরকার বলে কটাক্ষ করেন। এই রাজ্যে সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা নেই পিসি ভাইপোর তোলাবাজি সরকার চলছে বাংলায় বলে মন্তব্য করেন মোদি। গত কয়েকদিন ধরে এই এলাকাকে নরক বানিয়ে ফেলেছে তৃণমূল। এদিন মোদী বলেন, ” হারের ভয়ে দিদি রাস্তায় নেমে এসেছেন। সকলকে হুমকি দিচ্ছেন, আজ সকালে আমাকেও জেলে ভরার হুমকি দিয়েছেন”। দিল্লির সরকার জনগণের জন্য বিভিন্ন প্রকল্প গ্রহণ করেছে কিন্তু সেই প্রকল্প এর সুবিধা পশ্চিমবঙ্গের মানুষ পাচ্ছেন না, এখানকার সরকার মানুষকে সুবিধা পেতে দিচ্ছে না বলে অভিযোগ তোলেন নরেন্দ্র মোদি। তিনি আরো বলেন, “মানুষের সুবিধার জন্য কেন্দ্র রাস্তাঘাটসহ যে সমস্ত প্রকল্প করছে পশ্চিমবাংলায় সেই সমস্ত প্রকল্পের উপরেই স্টিকার সেটা দিচ্ছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তিনি এখন স্টিকার দিদি হয়েছেন”। এলাকার মানুষের জন্য কোন কাজ করছেন না বলে ও অভিযোগ করেন নরেন্দ্র মোদী।


Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *