কোচবিহার মহাশ্মশানে আচমকা আগুন, টেকনিক্যাল কর্মীদের দায়ী করে তদন্ত চাইল তৃণমূল।

0
188

মনিরুল হক, কোচবিহার: বড়সড় অগ্নি কাণ্ডের ঘটনা থেকে অল্পের জন্য রক্ষা পেল কোচবিহার মহা শ্মশানের বৈদ্যুতিক চুল্লি। আজ দুপুরে ওই শ্মশানে থাকা দুটি বৈদ্যুতিক চুল্লির একটির বিভিন্ন যন্ত্রাংশে আগুন লেগে যায়। পরে কোচবিহার দমকলকে খবর দেওয়া হলে দমকলের একটি ইঞ্জিন সেখানে গিয়ে ওই আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ঘটনার খবর পেয়ে সেখানে গিয়ে উপস্থিত হন কোচবিহার শহর ব্লক তৃনমূল কংগ্রেসের সভাপতি অভিজিৎ দে ভৌমিক। তিনি চুল্লির টেকনিক্যাল কর্মীদের উপড়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তিনি ওই ঘটনার জন্য যাতে তদন্ত করা হয়, সেই জন্য সদর মহকুমা শাসকের কাছে আবেদন জানাবেন বলেও সংবাদ মাধ্যমকে জানান।
অভিজিৎ বাবু জানান, কোচবিহার মহা শ্মশানে দুটি চুল্লি রয়েছে। একটি চুল্লি পুরসভা করেছে। অন্যটি উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দফতর। উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দফতর ওই চুল্লিটি হ্যান্ডওভার না করলেও কোচবিহার পুরসভার টেকনিক্যাল টিম ওই চুল্লি দুটি দেখভাল করেন। সম্প্রতি উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দফতরের দেওয়া চুল্লিটি বিকল হলে তাঁর যন্ত্রাংশ মেরামত করা হয়। সেই মেরামতের তিন চারদিনের মধ্যে এই অগ্নি কাণ্ডের ঘটনা ঘটল। টেকনিক্যাল টিমের গাফিলতির জন্যই এমন ঘটনা ঘটল বলে অভিযোগ করে অভিজিৎ বাবু বলেন, “রাতের দিকে এই ঘটনা ঘটলে চুল্লি ভেঙে বড় ধরণের দুর্ঘটনা ঘটতে পারত, আর টেকনিক্যাল টিমের গাফিলতিতে ওই ঘটনা ঘটলেও দোষ হত আমাদের দলের নিয়ন্ত্রণে থাকা পুরসভার উপড়ে। তাই এই ঘটনার তদন্ত করে যাতে প্রকৃত দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়, তার জন্য কোচবিহার সদর মহকুমা শাসকের সাথে দেখা করে আবেদন জানাব।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here