হুকিং এর প্রতিবাদ করায় প্রতিবাদী দম্পতি কে মারধর।

0
310

সুভাষ চন্দ্র দাশ,ক্যানিং – বিদ্যুতে হুকিং করার প্রতিবাদ করেছিলেন। আর সেই প্রতিবাদ করতে গিয়ে আক্রান্ত হলেন এক দম্পতি। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহষ্পতিবার রাতে ক্যানিং থানার অন্তর্গত দিঘীরপাড় গ্রাম পঞ্চায়েতের মাঝেরপাড়া গ্রামে।পেশায় লরি চালক সিরাজুল গায়েন এদিন বাড়িতে ছিলেন না।তাঁর স্ত্রী আজমীরা গায়েন বাড়িতে কাজ করছিলেন।সকালে তাদের বছর আড়াই বয়সের সন্তান আরিয়ান খেলছিল।আচমকা প্রতিবেশী ইলিয়াস গায়েনের হুকিং করা বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে পড়ে সে।স্থানীয় প্রতিবেশীরা দেখতে পেয়ে তড়িঘড়ি ছোট্ট শিশুকে বিদ্যুতের কবল থেকে মুক্ত করে। বড়সড় দু্র্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পায় শিশুটি।
সেই সময়ের মতো সমস্ত কিছু মিটে গেলেও গোল বাধে রাতের দিকে।
কলকাতা থেকে কাজ সেরে ফিরে আসেন সিরাজুল।হুকিং বন্ধ করার কথা বলেন প্রতিবাদ করেন। কারণ যেকোন মুহূর্তে আরো বড় ধরণের বিপদ ঘটতে পারে।
অভিযোগ হুকিংয়ের প্রতিবাদ করতেই আচমকা ইলিয়াস গায়েন,মিন্টু গায়েন আমিরণ গায়েনরা লাঠি ও কুড়ুল নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে। এলো পাথাড়ি মারধর করার পর কুড়ুল দিয়ে কোপায় সিরাজুল কে।স্বামী কে মারধর করা হাত থেকে উদ্ধার করতে এগিয়ে আসেন তাঁর স্ত্রী আজমীরা।অভিযোগ তাঁকেও মাটিতে ফেলে বেধড়ক মারধর করা হয় এবং মাথা ফাটিয়ে দেওয়া হয়।রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়ে ওই দম্পতি। প্রতিবেশীরা গুরুতর জখম অবস্থায় দম্পতি কে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানেই আশঙ্কাজনক অবস্থা চিকিৎসাধীন রয়েছেন ওই দম্পতি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here