১০০ দিনের কাজ প্রকল্পের মাধ্যমে ক্যানেল তৈরি করা নিয়ে কোটি টাকা তছরুপের অভিযোগ উঠলো আকন্দবাড়িয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধানের বিরুদ্ধে।

0
554

নিজস্ব সংবাদদাতা, মালদাঃ- ১০০ দিনের কাজ প্রকল্পের মাধ্যমে ক্যানেল তৈরি করা নিয়ে কোটি টাকা তছরুপের অভিযোগ উঠলো আকন্দবাড়িয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধানের বিরুদ্ধে। আর এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সংশ্লিষ্ট গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় তদন্ত শুরু করেছেন কালিয়াচক ৩ ব্লক পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি নিরুপমা ঘোষ, বিডিও জীবন কৃষ্ণ মন্ডল সহ ব্লক প্রশাসনের কর্তারা।
যদিও নিজের বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন আকন্দবাড়িয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান সন্ধ্যা রানী মন্ডল। তার পাল্টা অভিযোগ, ষড়যন্ত্র করে তার বিরুদ্ধে এই ধরনের অভিযোগ আনা হয়েছে। কারণ কিছুদিন আগে অনাস্থার মাধ্যমে তিনি প্রধান হয়েছেন। বিগত দিনে যিনি পঞ্চায়েত প্রধান ছিলেন , সেই সময় এই কাজগুলো হয়েছিল। তার আমলে এই ধরনের কোনো কাজ হয় নি। তাই সমস্ত অভিযোগ ভিত্তিহীন।
এদিকে স্থানীয় তৃণমূল নেতা তথা কালিয়াচক ৩ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতির স্বামী তরুণ ঘোষ বলেন, আকন্দবাড়িয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের ১০০ দিনের কাজ প্রকল্পের মাধ্যমে ক্যানেল তৈরি পরিকল্পনা ছিল। জমির আল ধরে এই ক্যানেল ব্যবস্থায় কৃষকদের অনেকটাই সুবিধা করে দিবে। তাই সরকারি নিয়ম মেনে টেন্ডার প্রক্রিয়ার মাধ্যমে সেই কাজ করা হয়েছে বলেও জানানো হয়। অথচ আকন্দবাড়িয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের কোথাও ক্যানেল তৈরির কাজ হয় নি । যেসব জায়গায় এই কাজের করার কথা ছিল। সেখানে নামমাত্র বোর্ড টাঙানো হয়েছে। তাও প্রায় ভগ্নদশা অবস্থা। এই প্রকল্পের মাধ্যমে কয়েক কোটি টাকার তছরুপ করেছে ওই গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান সন্ধ্যা রানী মন্ডল। এই নিয়ে স্থানীয় বাসিন্দারা অভিযোগ জানিয়েছেন পঞ্চায়েত সমিতি এবং ব্লক প্রশাসনের কাছে । তারই পরিপ্রেক্ষিতে বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু করা হয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে এই কাজের কোন সন্ধান মেলে নি । পরবর্তীতে পুলিশের কাছে সরকারি অর্থ তছরূপের অভিযোগ প্রধানের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় করা হবে।
এদিকে আকন্দবাড়িয়া গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানের স্বামী দিলীপ মন্ডল বলেন, মিথ্যে ভাবে তার স্ত্রীকে এখানে জড়ানো হয়েছে। কিছুদিন হলো অনাস্থার মাধ্যমে তার স্ত্রী নতুনভাবে প্রধান পদের দায়িত্ব পেয়েছেন । কিন্তু যে কাজের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। সেগুলি অনেকদিন আগের। এই ব্যাপারে নতুন প্রধান কিছুই জানেন না।
কালিয়াচক ৩ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি নিরুপমা ঘোষ এবং ভিডিও জীবন কৃষ্ণ মন্ডল জানিয়েছেন, ১০০ দিন কাজ প্রকল্পের মাধ্যমে সরকারি অর্থ তছরূপের যে অভিযোগ উঠেছে তা তদন্ত করে দেখা হয়েছে। পরবর্তীতে বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে, আইনগতভাবে পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

ছবি ——– আকন্দবেড়িয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের ১০০ দিনের কাজের অভিযোগ।