অকাল প্রয়াণ ঝাড়গ্রামের মেলাকে ভিন্ন মাত্রায় পৌঁছে দেওয়ার কারিগর সমীর মালাকারের!

0
206

তৃণ্ময় বেরা, ঝাড়গ্রাম : অকাল প্রয়াণ ঝাড়গ্রামের মেলাকে ভিন্ন মাত্রায় পৌঁছে দেওয়ার কারিগর সমীর মালাকারের! মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল আনুমানিক ৪৫ বছর। বাড়িতে রেখে গেলেন মা-বাবা-স্ত্রী-সন্তান পরিজনদের। শুক্রবার সকালে আচমকাই রক্তচাপ বৃদ্ধি পাওয়ায় মস্তিকে রক্তক্ষরণ হতে শুরু করে। ঝাড়গ্রামের শ্রীরাম নার্সিং হোমে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকে। চিকিৎসা শুরু হলেও প্রাণে বাঁচানো সম্ভব হয়নি তাঁকে। কলকাতা বা অন্যত্র আরো সুচিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়ার সুযোগটুকুও দিলেন সমীরবাবু। পরিজন থেকে বন্ধু-আত্মীয়দের আক্ষেপ সেটাই! ঝাড়গ্রামের যুব মেলা ও উৎসব, অফিসার্স ক্লাবের প্রাঙ্গণে শ্রাবণী মেলাকে ঝাড়গ্রামে ভিন্ন মাত্রায় পৌঁছে দেওয়ার প্রধান কারিগর ছিলেন তিনি। তাঁর নিজের আশীর্বাদ এন্টারপ্রাইজ শুধুমাত্র ঝাড়গ্রাম নয়, পূর্ব -পশ্চিম মেদিনীপুর ও ঝাড়খণ্ডের অনেক মেলায় তাঁর অবদান আছে। যেমন- চিচিড়া, এগরা, কাঁথি, দীঘা রামনগর, হলদিয়া, পানিপারুল সহ আর অনেক মেলার সাথে জড়িত ছিলেন তিনি। মেলা বা প্যান্ডেল, ডেকোরেটার্স ব্যবসায়ীদের অন্যতম ব্যক্তিত্ব ছিলেন তিনি। সমীর মালাকারের অকাল প্রয়াণে শোকস্তব্ধ তাঁর পরিজন থেকে শুরু করে আত্মীয়-বন্ধুরা!