জনসাধারণের ব্যবহার্য পরিস্রুত পানীয় জলকে ব্যবসায়ীক কাজে ব্যবহার করার অভিযোগ উঠেছে এক হোটেল মালিকের বিরুদ্ধে।

0
225

মালদা, নিজস্ব সংবাদদাতাঃ-নিজের ব্যবসায়িক সুবিধার্থে রাতের অন্ধকারে সরকারি হাটের প্রাচীর ভেঙে নতুন গেট খোলার পাশাপাশি পি এচ ই দপ্তরের টেপের পাইপ কেটে অবৈধভাবে ছাদে জলের ট্যাঙ্গ লাগিয়ে জনসাধারণের ব্যবহার্য পরিস্রুত পানীয় জলকে ব্যবসায়ীক কাজে ব্যবহার করার অভিযোগ উঠেছে এক হোটেল মালিকের বিরুদ্ধে।যদিও হোটেল মালিক নিজের দোষ এড়াতে অন্য এক দোকানদারের কথামত এই কাজগুলি করেছে বলে তার দাবি।স্থানীয় লোকেরা শনিবার তার অবৈধ কাজে বাধা দিতে গেলে তুমুল বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ে উভয় পক্ষ।ঘটনাটি ঘটেছে হরিশ্চন্দ্রপুরের ভবানীপুর ব্রিজ মোড়ে।

জানা গেছে,হোটেলটি তুলসীহাটা মার্কেটের সরকারি ভবনে ভাড়াতে রয়েছে।হোটেল মালিক মহম্মদ সোনু তুলসীহাটা মার্কেট কমিটিকে না জানিয়ে অবৈধভাবে প্রাচীর ভেঙে হোটেলের সামনে নতুন গেট খুলেছে।গেটটি সারারাত খোলা থাকার কারণে মার্কেটে নেশাখোরদের আড্ডার জায়গা হয়ে উঠেছে তুলসীহাটা মার্কেট চত্বর।রাতের আধারে যুবক যুবতীদের অশালীন কাজকর্ম বেড়েছে। অপরদিকে তুলসীহাটা পিএইচই দপ্তরের অনুমতি ছাড়া জনসাধারণের ব্যবহার্য পরিস্রুত পানীয় টেপের জলকে ব্যবসায়ীক কাজে লাগাচ্ছে বলে অভিযোগ।এদিন স্থানীয় বাসিন্দারা হোটেল মালিককে এই ধরনের কর্মকাণ্ড বারণ করতে গেলে উভয় পক্ষ বাক বিতন্ডায় জড়িয়ে পড়ে বলে খবর।

হাট কমিটি ও পিএইচডি দপ্তরের‌ কর্মীরা জানান তাদের অনুমতি ছাড়াই সে এইধরনের কাজ করেছে। হোটেল মালিকের সঙ্গে কথা বললেই আসল কথা বেড়িয়ে আসবে বলে তারা জানান।