সংবাদ মাধ্যমের খবরের জেরে বেসরকারি স্পঞ্জ আয়রন কারখানার দূষণ এল নিয়ন্ত্রনে।

0
179

নিজস্ব সংবাদদাতা, বাঁকুড়াঃ বাঁকুড়ার ছাতনা ব্লকের জোড়হিড়ায় রয়েছে একটি বেসরকারী স্পঞ্জ আয়রন কারখানা। সেই কারখানার বিরুদ্ধে দূষণ ছড়ানোর অভিযোগ এসেছিল বেশ কয়েকদিন আগে। কারখানা থেকে ৫০০ মিটার দূরে অবস্থিত জোড়হিড়া এস সি হাইস্কুলের পড়ুয়ারা দূষণের জন্য ক্লাস করতে পারছিলেন না। তাদের বিক্ষোভের খবর তুলে ধরা হয় সংবাদ মাধ্যমের পর্দায়। তারপরই দূষণের জেরে জেরবার হওয়া স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের জন্যও খবরের জেরে বেসরকারি স্পঞ্জ আয়রন কারখানার তরফ থেকে তৈরি করে দেওয়া হচ্ছে দরজা-জানলা, স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য জলের সুব্যবস্থা এবং খেলাধুলার জন্য মাঠ। কারখানা থেকে স্কুলের দূরত্ব মেরেকেটে পাঁচশো মিটার। অদূরে থাকা সেই কারখানার চিমনি থেকে গলগল করে বেরোত দূষিত ধোঁয়া ও কালো ছাই। সংবাদ মাধ্যমে সেই ছবি দেখানোর পরই নড়ে চড়ে বসে বেসরকারি স্পঞ্জ আয়রন কারখানার কর্তৃপক্ষ। দূষিত ধোঁয়া নিয়ন্ত্রণ করার যন্ত্র চালিয়ে নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে দূষণ। তার সঙ্গে কারখানার তরফ থেকে স্কুলের পরিকাঠামো আরো উন্নত করা হচ্ছে। জোরহিড়ার বেসরকারি স্পঞ্জ আয়রন কারখানার এইচ আর হেড প্রভাত ঝাঁ সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে কি কি গঠনমূলক ব্যবস্থা করা হয়েছে স্কুলের জন্য তা জানিয়েছেন এবং ভবিষ্যতে জোড়হিড়া এসসি হাইস্কুলের পাশে থাকার কথাও জানিয়েছেন তিনি।


শিল্প যেমন একটি দেশের প্রগতিতে মুখ্য ভূমিকা পালন করে সে রকমই শিল্পের কারণেই প্রকৃতি বারবার আঘাতপ্রাপ্ত হয়। যে ঘটনাগুলি কাম্য নয় সেই ঘটনা ঘটলেই আমরা সংবাদ মাধ্যম তা তুলে ধরার চেষ্টা করি। বিক্ষোভের পর জোড়হীরা এসসি হাইস্কুলের জন্য যে পদক্ষেপ বেসরকারি স্পঞ্জ আয়রন কারখানা গ্রহণ করেছে তার সাধুবাদ জানিয়েছেন স্কুলের প্রধান শিক্ষক সন্তোষ কুমার পাত্র। তিনি জানান “যা যা অভিযোগ আমরা করেছিলাম সেই সব অভিযোগের প্রেক্ষিতে কাজ শুরু হয়েছে। দরজা-জানলা সারানো হচ্ছে এবং বাথরুমও ঠিক করা হচ্ছে তার সঙ্গে খেলার মাঠ ও সংস্কার হচ্ছে।”