করোনা বিধিকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে রাজনৈতিক সমাবেশ সংগঠিত করে রাজ্যের শাসকদল তথা তৃনমূল কংগ্রেস।

0
399

পশ্চিম মেদিনীপুর, নিজস্ব সংবাদদাতা:- সবং এর মাটিতে বিরোধী দলের কেউ মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি ও  তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক ব্যানার্জি সম্পর্কে খারাপ মন্তব্য করলে পরদিনই দলের কর্মীরা সেখানে জবাব দেবেন। বুথ বৈঠক করবেন । পাড়া বৈঠক করবেন । রাজ্য সরকার ও দলের বিরুদ্ধে সবরকমের অপপ্রচার ও বঞ্চনার জবাব দেবেন।

রবিবার সবং বাজারে ভিড়ে ঠাসা জনসভায় এভাবেই বিরোধীদের জবাব দিলেন রাজ্যের জলসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী মানস ভুঁইয়া ।

তাঁর কথায় , দেশের কোনো রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি র মতো এত কাজ করেননি। জন্ম থেকে মৃত্যু মানুষের কাজে লাগবে এমন ৬২ টি জনমুখী প্রকল্প চালু করেছেন। বাংলার ৯ কোটি মানুষ এর ফলে উপকৃত হচ্ছেন।

তাঁকে বলতে শোনা যায় , সুবিধা প্রাপকদের কখনো জিজ্ঞেস করা হয় না তুমি সিপিএম না সিপিআই , কংগ্রেস না বিজেপি । আবেদনকারী সকলেই সুবিধা পান। অন্য রাজ্যে রাজনৈতিক পরিচয় দেখে সরকারি সুবিধা দেওয়া হয়। বাংলায় তা হয় না।

কারণ বাংলার  মুখ্যমন্ত্রীর কাছে মানুষ ও মানবসেবা শ্রেষ্ঠ।

কেন্দ্র সরকার যে বাংলাকে বারবার বঞ্চনা করছে তা তুলে ধরে তিনি জানান , রাজ্যসভা , লোকসভা , এমনকি মুখ্যমন্ত্রী এবিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে দরবার করলেও কোনো সুরাহা মেলেনি।

সভায় উপস্থিত পঞ্চায়েত প্রধান , সদস্যদের উদ্দেশ্যে বলেন , ‘ তুমি পঞ্চয়েত মানে তুমিই মমতা , তুমিই অভিষেক । ওঁদের প্রতিবিম্ব।

তুমি ভালো কাজ করলে ওঁদের ভালো। খারাপ কাজ করলে ওঁদের খারাপ। ‘

আর ৮/৯ মাস পর পঞ্চায়েত ভোট । এর আগে সমস্ত বকেয়া কাজ শেষ করে ফেলতে হবে ।

এদিনের সভায় উপস্থিত ছিলেন  প্রাক্তন বিধায়ক গিতারানী ভুঁইয়া , ঘাটাল সাংগঠনিক জেলার চেয়ারম্যান অমল পান্ডা , বিকাশ ভুঁইয়া , বিধায়ক অজিত মাইতি ,  ব্লক যুব সভাপতি আবু কালাম বক্স । পাশাপাশি সবং জনসভায় দাঁড়িয়ে বিধায়ক অজিত মাইতি জানালেন বহু আগে থেকে সিদ্ধান্ত থাকার জন‍্য মানস দা দের এই সভা।
যতক্ষন না করোনা কন্ট্রোল হয় ততদিন আমাদের দল আর কোথাও এ ধরনের সভা করবে না। সারাদেশে যখন করোনার তৃতীয় ঢেউ তথা ওমিক্রনের ধাক্কায় অসহায় পরিস্থিতি। সমস্ত জমায়েত নিষিদ্ধ, তখন শাসকদল এর বর্ষীয়ান মন্ত্রী মানষ ভুঁইয়া কি করে এই জনসমাবেশে র আয়োজন করল তার নিয়ে চলছে রাজনৈতিক চর্চা। তিনি নিজেই একজন ডাক্তার হয়েও এই রকম কান্ডজ্ঞ্যানহীন কাজ করলেন তার উত্তর পাওয়া যাবে না। মানষ বাবু এর জন্য সাধারণ মানুষের আবেগের দোহাই দিয়ে ভুল স্বীকার করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here