আজকের রেসিপিঃ নারকেল বাটায় চিংড়ি কচু।।।

0
79
উপকরণ : শাপলা লতা ৩৫০ গ্রাম বা এক আঁটি , মাঝারি চিংড়ি ৫টি, কোরানো নারকেল আধা কাপ, পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ, সয়াবিন তেল আধা কাপ, চেরা কাঁচা মরিচ ৪টি, হলুদ গুঁড়া আধা চা-চামচ, লাল মরিচের গুঁড়া ১ চা-চামচ, আদা বাটা আধা চা-চামচ, রসুন বাটা ১ চা-চামচ, টমেটো বাটা সিকি কাপ, লবণ আধা চা-চামচ, চিনি ১ চা-চামচ অথবা স্বাদ অনুযায়ী।

প্রণালি : শাপলা লতা বেছে দেড় ইঞ্চি লম্বা করে কেটে ধুয়ে চুলায় ফুটন্ত জলে ছেড়ে দিন। দু-একবার ফুটে উঠলে নামিয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। পরিষ্কার করা চিংড়ি মাছগুলো সিকি চা-চামচ হলুদ ও সিকি চা-চামচ লবণ দিয়ে মেখে কড়াইয়ে তেল গরম করে ভেজে উঠিয়ে রাখুন। একই তেলে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে ভেজে নিন। সিকি চা-চামচ লবণ দিয়ে আরও কিছুক্ষণ নেড়ে আদা-রসুন বাটা, হলুদ-মরিচের গুঁড়া, চিনি এবং সামান্য পানি দিয়ে কষিয়ে নিন। এবার টমেটো বাটা দিয়ে আরও কিছুক্ষণ ভালো করে কষিয়ে নিন। মসলা কষানো হয়ে গেলে শাপলা ও চিংড়ি মাছগুলো দিয়ে নাড়ুন। এবার কোরানো নারকেল, বাকি সিকি লবণ এবং কাঁচা মরিচ দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নেড়ে আঁচ কমিয়ে ঢেকে দিন। কিছুক্ষণ পর ঢাকনা খুলে আরেকবার নেড়ে পুনরায় ঢেকে দিন। জল টেনে মাখা মাখা হলে নামিয়ে গরম ভাত বা রুটির সঙ্গে পরিবেশন করুন।

পরামর্শ : শাপলা লতা কুটে বেছে নিতে নিতে খুব অল্প সময়ের মধ্যে একটা লালচে কালো আবরণ পড়ে যায়। ফুটানো জলে দিয়ে ভাপিয়ে নিলে সেটা আবার টাটকা সবুজ রং ধারণ করবে। যেহেতু এটা জলে জন্মায়, তাই এর সেই নিজস্ব একটা মেটে গন্ধ আছে, ভাপিয়ে জল নিংড়ে নিলে সেই গন্ধটাও দূর হয়ে যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here