১৫ থেকে ১৮ বছর বয়সের ছাত্র-ছাত্রীদের করোনার ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু হল মাথাভাঙ্গায়।

0
344

মনিরুল হক, কোচবিহার: করোনার তৃতীয় অধ্যায়ের আশঙ্কা শুরু হয়ে গেছে সারা দেশের সাথে। এই রাজ্যেও। তাই সরকার অনেকগুলো বিধি-নিষেধ আরোপ করেছে। পাশাপাশি আজ থেকে রাজ্যের সমস্ত স্কুল-কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের পঠন-পাঠন বন্ধ করে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে সরকার। এরই মাঝে সরকার পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে ১৫ থেকে ১৮ বছরের স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের করোনার ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ। সোমবার মাথাভাঙা মহাকুমার বিভিন্ন স্কুলের সঙ্গে সঙ্গে মাথাভাঙ্গা হাই স্কুলের প্রায় আড়াইশো জন ছাত্রছাত্রীকে করোনার ভ্যাকসিন টিকা প্রদানের ব্যবস্থা করা হয়েছে। একথা জানিয়েছেন মাথাভাঙ্গা মহকুমা শাসক অচিন্ত্য কুমার হাজরা। এদিন স্কুল চত্বরে করোনার ভ্যাকসিন নিতে আসা স্কুল ছাত্র-ছাত্রীসহ অভিভাবকদের ভিড় লক্ষ্য করা গেছে।

মাথাভাঙ্গা হাই স্কুলের ছাত্রী ক্যামেলিয়া বর্মন, একাদশ শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রী শ্রীতমা সাহা, দশম শ্রেণীর ছাত্র আরমান ইস্তে আজ কাজী, মাথাভাঙ্গা হাই স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্রের অভিভাবক রোজি য়া ইয়াসমিন প্রমুখ না বলেন, সামনে ওমিক্রণ আসতে চলেছে এ ধরনের খবর বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের কাছ থেকে পাচ্ছি তাই ভয় পাচ্ছিলাম। আজ করোনার ভ্যাকসিন নেওয়াতে অনেকটাই ভয় দুর হলো।

পাশাপাশি সকলেই আরও বলেন, সরকার যে বিধি নিষেধ গুলো আরোপ করেছে বিশেষ করে মাক্স পড়া, স্যানিটাইজার ব্যবহার করা, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা ইত্যাদি গুলো যদি আমরা সবাই যথাযথভাবে মানি তাহলে করোনার পাশাপাশি ওমিক্রণ এর থাবা থেকে রক্ষা পেতে পারবো। আজ থেকে শুরু হল এই করোনা ভ্যাকসিন দেওয়া, বেশ কিছুদিন ধরে চলবে এই কর্মসূচি, প্রশাসন সূত্রে এমনটাই খবর মিলেছে।