পৌর নির্বাচনে মুসলিম কমিউনিটির পুরুষ প্রতিনিধির দাবিতে বিভিন্ন মাদ্রাসা কমিটি এবং তৃণমূল সংখ্যালঘু সেলের পক্ষ থেকে বিক্ষোভ মিছিল, নদীয়ার শান্তিপুরে।

0
345

নদীয়া, নিজস্ব সংবাদদাতা:- নদীয়ার শান্তিপুর পৌরসভার 28% মুসলিম ভোটার থাকা সত্ত্বেও 24 টি ওয়ার্ডের মধ্যে মাত্র দুজন টিকিট পেয়েছেন তৃণমূলে, তাও আবার মহিলা। সে বিষয়ে গতকাল রাত থেকেই বিভিন্ন মাদ্রাসা কমিটি তৃণমূল সংখ্যালঘু সেল এবং মসজিদ কমিটির পক্ষ থেকে জেলা এবং রাজ্য নেতৃত্ব কাছে ফোন মারফত সমস্যার কথা জানানো হয়েছে, অথচ পরিবর্তনের কোনো ইঙ্গিত না পাওয়ায় আজ সকালে শান্তিপুর তৃণমূল ভবনে শতাধিক মুসলিম ধর্মালম্বী তৃণমূল কর্মী সমর্থক জমায়েত হন এবং তারা একটি বিক্ষোভ মিছিল করে শান্তিপুর ডাকঘর মোড়ে পৌঁছান। পথ অবরোধ না হলেও তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়, তাদের দাবি মুসলমান সমাজে মহিলারা খুব বেশি প্রকাশ্যে আসেন না তাই 22 এবং 23 এই দুটি ওয়ার্ডে মহিলা প্রার্থী করা হয়েছে। অথচ একটি পুরুষ মুসলমান সমাজের পক্ষ থেকে প্রতিনিধিত্ব করতে পারবেনা শান্তিপুর পৌরসভায়। তাই শহরের তিন নম্বর ওয়ার্ড 9 নম্বর ওয়ার্ড বাড়তি টিকিট দাবি করছেন তারা। যদিও এ বিষয়ে বিধায়ক ব্রজকিশোর গোস্বামী বলেন পূর্বেও দুটি সিট ছিল বর্তমানেও আছে। এবং তাদেরই পরিবার থেকে এই দুই মহিলাকে প্রার্থী করা হয়। শহর সভাপতি বৃন্দাবন প্রামাণিক জানান, দল যেটা সিদ্ধান্ত নিয়েছে সেটাই চূড়ান্ত। তবে তাদের বিষয়টা ঊর্ধ্ব নেতৃত্বর সঙ্গে আলোচনা করব। অন্যদিকে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের পক্ষ থেকে জানানো হয় পুরুষ প্রার্থী না হলে আন্দোলন আরো জোরদার হবে।