একুশের অপরাজিতা : ডঃ অশোকা রায়।।

0
346

একুশের অপরাজিতার জীবনে তুমি এক স্পর্ধা হয়ে এসেছিলে|
তোমার অপরূপ ঘ্রাণে আমার অনুভব..
সে তো আমার দুপুর দিন রাতের দগ্ধ পরিক্রমণ.
ঝরা বৃত্তে নীরব রক্তের পালক |
তাই তো সোনালী ধানের স্তনে মুখ ফুঁপিয়েছে ভালোবাসা| মধুশালা মাঝপথে শেষ|
পান পাত্র রয়েছে পড়ে আধেক খালি|
গেছো চলে তুমি অসময়ে|
তখনও আধ হাত ঘোমটায়
আধফোটা হয়ে আসে নি গভীর রাত|
তোমার শায়েরি ভেজা ঠোঁটে অসমাপ্ত চুম্বন..
অসময়ের কেটে যাওয়া তাল|
জানি তুমি খড়ো বাতাসে অলীক ভালোবাসা|
মিথ্যে ধীবরের জালে মুখ ঢেকে তোমার যাওয়া আসা |
সমুদ্রের ঢেউের সাথে কাঙালপ‌ণা তোমার অভ্যেস|
তরঙ্গের তালে নাচ তুমি রঙ্গে মন ফাঁসানোর রক্তাক্ত খেলা|
তোমার উষ্ণতায়
অরণ্যের দামাল মাতামাতি|
শালপিয়ালের গা ছমছম ফিসফিস |
মিলিয়েছি পা মৃত্যুর মরশুমে|
না জেনে, না চিনে
অচেনা কোন আবেগের আকাশে|
ভেবেছিলাম এই বুঝি মিলনের মালকোষ|
শনাক্ত করতে পারি নি ভালোবাসার শব্দ – কোষ|
তাইতো আমি আজ নাথবতী হয়েও অনাথিনী|
দহণে দগ্ধ হই|
স্মৃতির দঙ্গলে আজ বড্ড পাগলামি |
নয় কেউ দায়ী|
একুশের অপরাজিতা আমি| পরাজিত একা অপরাধী|

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here