বৃষ্টিকে উপোক্ষা করেও ছাতা মাথায় দিয়ে সভাস্থলে হাজির তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী সমর্থকরা।

0
182

আবদুল হাই, বাঁকুড়াঃ পঞ্চায়েত ভোট হতে আর কয়েকটা দিন।সব রাজনৈতিক দলের প্রচার তুঙ্গে। বুধবার বাঁকুড়া জেলার ইন্দাস ব্লকের করিশুন্ডা এলাকার গোবিন্দপুর এলাকায় নির্বাচনী সভার আয়োজন করে তৃণমূল কংগ্রেস। সভা শুরুর আগেই দফায় দফায় বৃষ্টি শুরু হয়। এই বৃষ্টিকে উপেক্ষা করেও সভাস্থলে হাজির হয় তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী সমর্থকরা।সভা শুরু হতেই বৃষ্টি পরতে থাকে। বৃষ্টি হলেও কর্মী সমর্থকরা ছাতা মাথায় দিয়ে দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে প্রিয় নেতার বক্তব্য শোনেন।সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি সেখ হামিদ বলেন, ২০০৮ সালে এই গ্ৰামে ঘুরে ঘুরে দেখেছি অনেক গরীব মানুষ আছে।যারা দিন আনে দিন খায়।কেউ কেউ বার্ধক্য জনিত রোগে ভুগছে।যাদের ২০০ টাকা দেওয়ার মতো কেউ নেই। অনেক মানুষ অনাহারে অর্ধাহারে আছে। সেই সময়ের সরকার শুধুমাত্র শ্রমজীবী মেহনতি মানুষদেরকে মিথ্যাচার করে বিভ্রান্ত করে তাদেরকে বোঝাতো যে সি পি আই এম পার্টি কাদের পার্টি। তাদেরকে পার্টির সাথে থাকতে হবে। ভালোবাসতে হবে।ভোট দিতে হবে এবং সি পি আই এম পার্টির হয়ে লাঠি নিয়ে মারামারি করতে হবে।সি পি আই এম পার্টির লোকজন হয়েও তাদেরকে ভাতার আওতায় আনতে পারেনি। সেই সময়ে গুটি কয়েক মানুষ ভাতা পেতেন। তৃনমূল কংগ্রেসের আমলে একশোর উপর বার্ধক্য ভাতা, বিধবা ভাতা পাচ্ছে।এটা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর অবদান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here