ঠাকুরবাড়ির শিল্প-কথা : বনশ্রী রায় দাস।

0
460

মধ্যরাতের বিমূর্ত ভাবনাগুলো শরীরের অলিগলি বেয়ে লতিয়ে যাচ্ছে সীমাহীন ,
ক্ষয়াটে হৃদয়ের চাওয়া পাওয়া ঘিরে দুলতে
থাকে পেন্ডুলামের মতো।
নোনা ধরা মনের উজ্জ্বলতা ফিরে পেতে
ঢেউয়ের পাতা উলটাতে থাকি ,
সমুদ্র জলের ওপর কিলবিলিয়ে উড়ে পাখি।
শূন্যে ভাসাই চোখের তারা – – –
আকাশ বৃক্ষে ফুটে আছে অসংখ্য তারাফুল ।
ছায়ায় গালিচা পেতে চলছে ঠাকুরবাড়ির
শিল্পকলার আসর , দেবগুরু বৃহস্পতির আসনে স্বয়ং রবীন্দ্রনাথ,
তাঁকে ঘিরে নক্ষত্ররূপী কলাকুশলীগন।
ছবি আঁকছেন অবন ঠাকুর ,
কবির গানে সুর দিচ্ছেন রানী চন্দ,
নাটক রচনায় মগ্ন জ্যোতিরিন্দ্রনাথ।
অতিথির আসন অলংকৃত করেছেন গুণীজন।
অদুরে বকুল -বকুল হাসি নিয়ে অপেক্ষমাণ
মেঘ-পরী ভিক্টোরিয়া ওকাম্পো ,
দেখে চমক লাগল হুবহু আমারই মতো ।
#
সম্বিৎ ফিরলো ভোরের সুবর্ণ আলো যখন
রেলিং টপকে চলকে পড়লো চোখের পাতায় !
মৈত্রী চ্যানেলে চলছে গীতবিতান পর্ব – – –
”আমি চিনি গো চিনি তোমারে
ওগো বিদেশীনি” ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here