মুহূর্ত : সুদেষ্ণা দত্ত।

0
572

সেদিনও ছিল এমনই এক ধ্রুবতারা ভোর-
ভস্মস্তুপ শরীরের ভেতর নিভন্ত আগুন লুকিয়ে
আমি ছিলাম তোমার বিনিদ্র প্রতীক্ষায়।
জীবন ভেবেছিল আমি বোধহয় মৃত,
মৃত্যু ভেবেছিল আমি নির্বাসিত প্রাণ,
অকস্মাৎ, প্রথম সূর্যের আলো মেখে এসেছিলে তুমি
তোমার হীরক স্পর্শে কেটেছিল মৃত্যুর ঘোর,
বুকের সুপ্ত আগ্নেয়গিরি থেকে জেগে উঠে
আলস্য ভেঙেছিল স্ফুলিঙ্গ ভালোবাসা।
তৃষ্ণায় শুকিয়ে যাওয়া মরুভূমি হৃদয়কে
উর্বরতার খরস্রোতে দিয়েছিলে সৃষ্টির আশ্বাস,
নিশ্চল সময় ছুঁয়েছিল ব্যস্ততম সুখ –

জানি,তবু জানি কখনো বিদায় নিতে চাও যদি,
নিয়তির অমোঘ মায়ায় তোমার সমস্ত দান হবে ব্যর্থ ,
‘আঁধার দেবেই যদি,কেন দিলে মিথ্যা সূর্যোদয় ?’
সংশয়াতীত ভাবে এ প্রশ্ন থাকবে নীরব,
মনে করাবো না,সেই অগ্নিদগ্ধ প্রতীক্ষার রাত,
তোমাকে বিদায় দেব পার হওয়া বয়সের মত,
শুধু স্মৃতি আর শব্দ রয়ে যাবে অসমাপ্ত গল্পে,
অজানা আগামী ছুঁয়ে অভিজ্ঞ ঘরপোড়া আমি
চিরন্তনের বুকে এঁকে দেবো
মুহুর্তের চিরজীবী পদক্ষেপ…