ঝোরা ঝরোখা : অনিন্দ্য মুখোপাধ্যায়।

0
557

ঝরছে ঝোরা, আপত্তি নেই, ঝরুক,
পাহাড় ঘেরা বনের ভিতর,
যা, যাকিছু অস্বস্তিকর,
সে তাই বরং, সেটাই ঝেড়ে ফেলুক।
ঝরছে ঝোরা, পাগলা ঝোরা, ঝরুক।

শাল যেখানে অনেক, ঝাঁকে,
গা এলিয়ে দাঁড়িয়ে থাকে,
অন্যদিকে শিমূল-পলাশ তরু–

মায়ার মতো প্রপঞ্চময়,
পথ এখানে প্রশস্ত নয়,
বরঞ্চ পথ ভীষণরকম সরু।

তবুও পথ যেতেই হবে,
সংগঠিত এ বিপ্লবে–
শির উঁচিয়ে দাঁড়িয়ে মহীরুহ,

ঝরলে ঝোরা হালকা হবে,
ঝরছে যখন, ঝরুক তবে,
যাবজ্জীবন এ বিপ্লবে
ব্যর্থ হলে দুয়ো–

দেবেই, যারা সঙ্গে থাকে,
সময় সময় আস্থা রাখে,
নিজের কাছে গুল্ম তুমি, তাদের কাছে তরু।

তাই এ পথে সামলে হাঁটা,
অধীর হলেই ফুটবে কাঁটা,
কারণ এ পথ, ভীষণরকম সরু।

ফুটলে কাঁটা আপত্তি নেই, রক্ত নেবে মাটি,
একলা যখন, নিজেই নিজের সঙ্গী হয়ে হাঁটি,
কী আর হবে! হতেই হবে কল্পরূপী তরু,
তাই দু’চোখের পাগলা ঝোরা, ঝরছে যখন ঝরুক।