রাতের হেলসিঙ্কি ও কিছু সঙ্কেতময় কথাবার্তা (ইউরোপ থেকে – পর্ব১) : রাজাদিত্য ব্যানার্জী।

0
3439

ইউরোপ থেকে।

রাতের হেলসিঙ্কি ও কিছু সঙ্কেতময় কথাবার্তা
লেখা ও ছবি। রাজাদিত্য ব্যানার্জী

মাইনাস ১১!!! সুপর্ণা না বলে দিলেও বুঝে গেছি শীতকাল এসে গেছে অনেকদিন আগেই।
মাঝে মাঝে ভাবতে বসি: কে বেশি কুঁড়ে? আমি না সময়? নাকি দু’জনেই?

ক্লান্ত শরীরটাকে টানতে টানতে নিয়ে গেলাম অন্ধকার মাখা হেলসিঙ্কি শহরে। কনকনে ঠাণ্ডা। এক মুঠো বরফ মাখা বাতাস মুখে ঝাপটা দিয়ে জানাল, তোমারই অপেক্ষায় ছিলাম। এসেছি ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন ও ফিনিশ সরকারের আমন্ত্রণে নতুন স্টেজ ও সিনেমা হল দেখতে।
ইন্ডিপেনডেন্ট ফিল্মমেকার ও পারফর্মিং আর্টিস্টদের জন্যে সিনেমা হল ও স্টেজ বানানোর কাজ চলছে।

মুনাফালোভী বাজার, কালচার মাফিয়া ও কিছু পেইড নিউস স্পেশালিস্ট মিডিয়ার হাত থেকে যাতে ইন্ডিপেনডেন্ট আর্টিস্টরা বেঁচে থাকতে পারেন তাই এই উদ্যোগ। তার মানে কি ইউরোপ ফিল্মমেকার /আর্টিস্টদের স্বর্গ? আজ্ঞে না, তবে বিশ্বের নানান জায়গায় সংস্কৃতির নামে যে ফ্যাসিবাদ চলছে তার থেকে কিছুটা হলেও রেহাই পেয়েছে ইউরোপ ।

মঞ্চে পা দিলাম। মনটা ভালো হয়ে গেলো। অভিনয় একটা শিল্প। শুধুমাত্র বিনোদনের মাধ্যম নয়। এই শিল্প ও শিল্পীর সংযোগ অতি নিবিড়, যা ভাষায় ব্যক্ত করা যায় না। মঞ্চে এক পা, দু’পা করে হাঁটতে হাঁটতেই এই সংযোগটা আমার প্রতিটি শিরা-উপশিরায় যেন অনুরণন তুলল।

সিনেমা হলে গিয়ে শুনলাম ইউরোপিয়ান স্মল প্রোডাকশন হাউসের ছবি দেখানো হবে। আবার মন ভালো হয়ে গেলো। লড়াইটা চালিয়ে যাওয়ার ভরসা পেলাম।

পাসোলিনি বলেছিলেন, “না হলো বাঁচা, না হলো মরা”, তেওরামা দেখতে দেখতে ওর শেষ সাক্ষাৎকারটার কথা মনে পড়ল।
খুন হওয়ার কয়েক ঘণ্টা আগে বলে গিয়েছিলেন আমরা বিপদাপন্ন, এক গভীর ট্রাজেডি নেমে এসেছে আমাদের জীবনে।
বিকেল ৫টা বাজতে চললো। চারিদিকে অন্ধকার নিবিড় হয়ে আসছে। পাসোলিনি ঠিকই বলেছিলেন এই ট্রাজে়ডি নিবিড়, ঘন অন্ধকারেরই অনুরূপ।
বিশ্ব জোড়া ক্যানভাসে মানুষ শুধু একটা যন্ত্র। শিল্প আর এখন মানুষের আশ্রয় নয়।

পাসোলিনি ও জন আব্রাহ্যামকে তবু বলে যেতে হবে আমাদের: শুনুন অন্ধকার কাটছে। আরও কাটবে যদি একে অপরের প্রতি আমরা একটু কম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগি, প্রতিযোগিতা নয় সহযোগিতা করি। ….
(আব্রাহ্যাম কে ছিলেন? যতদূর জানি সিক্স প্যাক ছিল না তাঁর, অভিনেতা বা নেতাও ছিলেন না। ঘটকবাবুর প্রিয় ছাত্র, আভাগার্দ বিপ্লবী পরিচালক ছিলেন)

বাড়ি ফিরব। হাঁটতে শুরু করলাম। হিমেল হাওয়া আর একটা নিথর রাত উপহার দিচ্ছে হেলসিঙ্কিকে।

পার্ক থেকে ভেসে আসছে শুনতে পাচ্ছি—
“The answer my friend is blowing in the wind ”

কপিরাইট। রাজাদিত্য ব্যানার্জী
হেলসিঙ্কি। ফিনল্যান্ড।
২০ নভেম্বর ২০১৮
২১.১২ মিনিট