মরার ওপর খাঁড়ার ঘা : শিপ্রা দে।

0
408

লীলার ঘরে আজকে কাজের মেয়ে রেখা আসে তাঁর আগের মাসে পয়সা নিতে
“দিদি আমার ট্যাহাটা দিবান নাকি?”
লীলা:-হ্যাঁ দিতে তো হবে কিন্তু দেখ আমার কাজ করে করে কি শরীরের হাল হয়েছে! আর কতদিন তুই আসবি না বলতো!
রেখা:-ক্যান কি হৈল? এহন তো লক ডাউন কি করুম কন ?আর কটা দিন চালাইয়া লন।
লীলা:-হ্যাঁ হ্যাঁ তোর তো পোয়াবারো,খাচ্ছিস আর শরীর ফোলাচ্ছিস,কি জানি আর কতদিন এই লক ডাউন থাকবে!
রেখা:-যা বাব্বা,আমি যহন কইতাম কাজ কইরা গা গতর কি বেদন হয় যে কি কমু! আমার গ্লিমারডাও চইল্যা গেছে সগ্গলেই আমারে দেইখ্যা জ্বলত জানেন নি! তহন আপনেই তো কইতেন “যতো কাম করুম শরীর তত ভালো থাকব আর এহন কইতাছেন আপনার কাম কইরা শরীর ভাইঙা গেছে!
লীলা আর কোনো কথা না বাড়িয়ে গত মাসের টাকাটা ধরিয়ে দেয়। আর মনে মনে ভাবে বাবারে বাবা কি সাংঘাতিক “এতো মরার ওপর খাঁড়ার ঘা!”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here