নীরবতার মিছিল : স্বাতী মন্ডল।

0
651

জীবন থেমে যায়, থেমে যায় সব চেষ্টা;
গোনা দিনগুলো না জানি কোথায় হারায়!!

সময় তো আর নেই হাতে,
অপেক্ষা তবুও দুচোখের নির্ঘুম পাতায়;
সারি সারি শব চলে যায় নিরুদ্দেশে!!

ছোঁয়া যাবে না বিশাল এক রোদ,
জমানো সব আয়ুরেখা জলছাপ রেখে যায়!!

কোনটা বৃষ্টি ফোঁটা, কোনটা চোখের জল!
একাকী রাতের সব স্বপ্ন বাস্তব হয় না,
কিছুটা স্বপ্ন কাল্পনিকও হয়!!

নীরবতা বলে, না বলা অনেককিছু….
কিছুটা স্পর্শ, কিছুটা জলছাপ, আবার অনেক অনেকটা নোনা শ্রাবন!!

লাল গোলাপটা সাজিও না তাই,
বরং দিও কিছু সাদা জুঁই বেলি গন্ধরাজ!
লাল রঙটা কেমন যেন রক্তভেজা লাগে আজ!!

কেউ বাঁচে আর কেউ ভান করে,
চোখ দুটো তাই নোঙর খুঁজেই চলে!
গল্প উপন্যাসের কালঘুম ছেঁড়া ছেঁড়া ডাইরির ভাঁজে,
ভাঙাচোরা হাঁটুগুলো মাটিতে লুটিয়ে কাঁদে!!

বিলুপ্ত অনেক নীরব গন্তব্য,
ফাঁকা মুঠোয় ওষুধের আবদার,
হাতগুলো ছেড়ে গেছে, বাঁধন ধুলো মেখেছে!
নীরবতার মিছিল তোলে স্লোগান;
থামলো যত তেষ্টা, যত দাবি দাওয়ার পরিচয়!!