কর্মসংস্থান বৃদ্ধি ও রাজ্যে মাংস ও ডিমের উৎপাদন বৃদ্ধি জন্য বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে ঝাড়গ্রামে বৈঠক প্রাণিসম্পদ দপ্তরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথের।

0
118

তৃণ্ময় বেরা, ঝাড়গ্রাম :- কর্মসংস্থান বৃদ্ধি ও রাজ্যে মাংস ও ডিমের উৎপাদন বৃদ্ধি জন্য বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে ঝাড়গ্রাম জেলা শাসকের অফিস প্রাঙ্গণের সিধু কানু হলে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা ও ঝাড়গ্রাম জেলার সমস্ত প্রাণিসম্পদ দপ্তরের আধিকারিকদের নিয়ে বৈঠক করলেন রাজ্যের প্রাণিসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ । এদিনের বৈঠকের মূল আলোচ্য বিষয় ছিল পশু পালনের মাধ্যমে কিভাবে স্বসহায়ক দলগুলিকে আরো আর্থিকভাবে সমৃদ্ধ করা যায়, যুবক যুবতীদের কর্মসংস্থান বৃদ্ধি করা এছাড়াও রাজ্যে যে পরিমাণ মাংস ও ডিমের প্রয়োজন তারও উৎপাদন কিভাবে বৃদ্ধি করা  এই প্রসঙ্গে দীর্ঘক্ষণ আলোচনা হয় । এই আলোচনা সভায় মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বন ও ক্রেতা সুরক্ষা দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী বিরবাহা হাঁসদা,  ঝাড়গ্রাম জেলা পরিষদের সভাধিপতি মাধবী বিশ্বাস, ঝাড়গ্রামের জেলাশাসক জয়শি দাশগুপ্ত । বৈঠক শেষে মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ বলেন , পশ্চিম মেদিনীপুর ও ঝাড়গ্রাম এই দুই জেলার প্রাণিসম্পদ দপ্তরের আধিকারিকদের নিয়ে বৈঠকের মাধ্যমে জানতে চেয়েছি এই দুই জেলায় কেমন কাজ চলছে । পশু পালনের মাধ্যমে কিভাবে মাংস ও ডিমের বৃদ্ধি এবং কর্মসংস্থান বৃদ্ধি করা যায় এই বিষয়ে আলোচনা করেছি । হাঁস-মুরগি , ছাগলের প্রতিপালন কি ভাবে বৃদ্ধি করা যায় সে বিষয়েও আলোচনা করা হয়েছে । ঝাড়গ্রাম জেলার আটটি ব্লকেই আটটি ভ্যাটনারী মোবাইল ভ্যান রয়েছে । যেগুলো গ্রামের প্রত্যন্ত এলাকায় গিয়ে প্রাণীদের চিকিৎসা দিয়ে চলেছে । ঝাড়গ্রামে খুব উন্নত মানের ডিম উৎপন্ন হচ্ছে । এওয়ান প্রজাতির মুরগি চাষ করে ২৮ দিনের মধ্যে স্ব সহায়ক গোষ্ঠীর মহিলারা যাতে আরো আর্থিকভাবে সমৃদ্ধি হয় সেই বিষয়ে দেখা হচ্ছে । তিনি আরো বলেন , আমি অনেকের কাছে শুনলাম এখানে যে মুরগির খাবারের জন্য সয়াবিন প্রয়োজন তা ঝাড়গ্রামের জলবায়ুতে খুব ভালো হবে । তাই সয়াবিন চাষের জন্য আমি কৃষি দপ্তরকে জানাব ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here