কোচবিহার পঞ্চানন বর্মা বিশ্ববিদ্যালয়ের খলিসামারি ক্যাম্পাসের শুভ উদ্বোধন করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

0
227

মনিরুল হক, কোচবিহার: অবশেষে সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়ে বহু আন্দোলনের ফসল পেতে চলেছে পঞ্চানন বর্মা দ্বিতীয় ক্যাম্পাস। আগামী ২০ ডিসেম্বর পঞ্চানন বর্মা সংগ্রহশালায় কোচবিহার পঞ্চানন বর্মা বিশ্ববিদ্যালয়ের খলিসামারি ক্যাম্পাসের পঠন-পাঠন শুরু হবে। ভার্চুয়ালি পঠন-পাঠনের সূচনা করবেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার আগে পঠন-পাঠন চালুর পরিকাঠামো খতিয়ে দেখতে সংগ্রহশালা পরিদর্শন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ডক্টর আব্দুল কাদের সাফেলি। তিনি পঞ্চানন বর্মা জন্মভিটায় পঞ্চানন বর্মা বিশ্ববিদ্যালয় দ্বিতীয় ক্যাম্পাসের সমস্ত বিষয় খতিয়ে দেখেন।

এদিন পরিদর্শনের পর রেজিস্টার ডক্টর আব্দুল কাদের সাফেলি বলেন, ক্লাসরুম, বিদ্যুৎ ও অন্যান্য পরিকাঠামো তৈরিতে কাজ চলছে তা খতিয়ে দেখতে এদিন সংগ্রহশালায় এসেছি। প্রথমে পঠন-পাঠনের আনুষ্ঠানিক সূচনা ১৭ ডিসেম্বর হবে বলে ঘোষণা করেছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ডক্টর দেব কুমার মুখোপাধ্যায়। পরবর্তীকালে তা ২০ ডিসেম্বর করা হয়। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই পঠন-পাঠনের শুভ সূচনা করবেন।

পঞ্চানন বর্মা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ডক্টর দেব কুমার মুখোপাধ্যায় বলেন, শুরুতে ইতিহাস এবং বাংলা বিষয়ে ৫০ টি করে আসন মোট ১০০জন পড়ুয়া স্নাতকোত্তর পড়াশোনা করতে পারবেন।

পূণ্যভূমি খলিসামারির পঞ্চানন বর্মা ডেভেলপমেন্ট এন্ড ট্রাস্টের সম্পাদক তথা বিশিষ্ট পঞ্চানন অনুরাগী শিক্ষাবিদ কোচবিহার জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি গিরীন্দ্রনাথ বর্মন বলেন, দীর্ঘদিনের আন্দোলন সফল হতে চলেছে আগামী ২০ ডিসেম্বর। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভার্চুয়াল এর মাধ্যমে পঠন-পাঠনের শুভ সূচনা করবেন। এটা আমাদের পক্ষে সৌভাগ্যের এবং গৌরবের। পঞ্চানন বর্মা ডেভেলপমেন্ট এন্ড ট্রাস্ট এবং বিশ্ববিদ্যায় আন্দোলনের সমস্ত শরীক এবং স্থানীয় বাসিন্দাদের পক্ষ থেকে মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানাই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here