গলাকাটা শিশুর দেহ উদ্ধারের ঘটনায় সাফল্য পেল পুলিশ! ঘটনার এক মাস পর মৃত শিশুর ‘মা’ গ্রেফতার।

0
135

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঝাড়গ্রাম:- ঝাড়গ্রাম জেলার গিধনির জঙ্গলে গলাকাটা শিশুর দেহ উদ্ধারের ঘটনায় সাফল্য পেল পুলিশ। ঘটনার এক মাস পর মৃত শিশুর মাকে গ্রেফতার করেছে জামবনি থানার পুলিশ। মোবাইল ফোনের সূত্র ধরেই মঙ্গলবার রাতে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার মোহনপুর থানা এলাকার বড়াই থেকে তাঁকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তাঁর বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২, ২০১ ধারায় মামলা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, মৃত ওই শিশুর নাম সাগেন হেমব্রম (৪)। ছেলেকে খুনে অভিযুক্ত মায়ের নাম লক্ষ্মী হেমব্রম। ঝাড়গ্রামের ডুমুরিয়া এলাকায় বাড়ি তাঁর। ফেব্রুয়ারি মাসে লক্ষ্মীর স্বামী মঙ্গল হেমব্রম মারা যান। তার পর থেকে পারিবারিক অশান্তি লেগে ছিল বলে পুলিশকে জানিয়েছেন লক্ষ্মী। তখন ডুমুরিয়া থেকে মানিকপাড়ার ঠাকুরথান গ্রামে বাবার বাড়িতে চলে যান তিনি। লক্ষ্মী পুলিশকে জানিয়েছেন, ১০ নভেম্বর ছেলেকে নিয়ে ঝাড়গ্রাম জেলার জামবনি থানার গিধনি এলাকার জঙ্গলে গিয়েছিলেন। সেই ছেলেকে বিষ খাইয়ে ফেলে চলে যান বলে পুলিশি জেরায় স্বীকার করেছেন অভিযুক্ত।
১৪ নভেম্বর স্থানীয়দের থেকে খবর পেয়ে চার বছরের শিশুর দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। তার পর ঝাড়়গ্রাম হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়। ঘটনাস্থল থেকে স্কুলের ব্যাগও পাওয়া যায়। বেশ কিছু জামা-কাপড় এবং বই উদ্ধার হয়েছে বলেও জানিয়েছে পুলিশ। পুলিশ জানিয়েছে, ধৃতকে বুধবার ঝাড়গ্রাম আদালতে তোলা হবে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাঁকে পাঁচ দিনের হেফাজতে নেওয়ার আবেদন জানাবে পুলিশ। লক্ষ্মীকে জিজ্ঞাসাবাদের পর খুনের কারণ বিস্তারিত জানা যাবে বলে আশাবাদী পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here