সীটু ও এআইটিইউসি সংগঠনের বিভিন্ন দাবি দাওয়া নিয়ে বিক্ষোভ অবস্থান।

0
156

আবদুল হাই, বাঁকুড়া :- আজ বাঁকুড়া পৌরসভার সামনে সীটু ও এআইটিইউসির পক্ষ থেকে অবস্থান বিক্ষোভ করা হয় । তাঁরা পৌরসভা কর্মীদের সরকারী আদেশ মেনে ন্যুনতম বেতন অস্থায়ী কর্মীদের স্থায়ীকরণ সহ বিভিন্ন বিষয়ে বাঁকুড়া পৌরসভার সামনে পাঁচ ঘন্টা অবস্থান বিক্ষোভ করেন । এই বিষয়ে বাঁকুড়া জেলা পৌর শ্রমিক কর্মচারীর জেনারেল সেক্রেটারি অশোক ব্যানার্জি বলেন যে ,এই পৌরসভাতে কর্মরত শ্রমিকদের ন্যুনতম 16500 টাকা বেতন দিতে হবে অস্থায়ী কর্মীদের স্থায়ী করণ করতে হবে । তাঁর অভিযোগ যে 2011 এর পর থেকে কোনো নতুন চাকরি হয় নি যদিও এই বিষয়ে নির্দিষ্ট সরকারী নিয়ম আছে । তিনি বলেন যে তাঁরা চান যে এই সমস্যাগুলির বিষয়ে বাঁকুড়া পৌরসভা শীঘ্রই কোনো সিদ্ধান্ত নেন ।তিনি বলেন যে বর্ধিত হারে পেনশন পাওয়া যাচ্ছে না ।তিনি জানান যে এস ডি ও এবং জেলা শাসককে বলেও কোনো লাভ হয়নি । তাই আজ তাঁরা বাধ্য হয়ে পাঁচ ঘন্টার অবস্থান বিক্ষোভ করেন । অন্যদিকে এআইটিইউসি বাঁকুড়া জেলা সহ সম্পাদক ভাস্কর সিংহ জানান যে আজ তাঁদেরকে যে বিষয়ে আন্দোলন করতে হচ্ছে তা অত্যন্ত লজ্জার । তিনি কটাক্ষ করে বলেন যে সরকার নিজের বানানো নিয়ম নিজেই মানছে না । তিনি বলেন যে জেলা শাসক দপ্তরে কর্মরত অস্থায়ী কর্মীদেরও পিএফ মিলছে না যদিও সরকারের নিয়মে এটি তাদের পাওয়ার কথা । তিনি বলেন যে মানুষ রিটায়ার করছে কিন্তু নতুন লোক নেওযা হচ্ছে না । তিনি বলেন এটি অত্যন্ত লজ্জার যে একটি সভ্য সমাজে নায্য দাবিগুলির জন্য আন্দোলন করতে হচ্ছে । তিনি বলেন যে আজকের এই আন্দোলন বাঁকুড়া ও বিষ্ণুপুরের পুর কর্মীরা এসেছেন । তিনি বলেন যে যদি তাঁদের দাবি দাওয়া মানা না হয় তাহলে তাঁরা ধর্মঘটের পথে হাঁটতে বাধ্য হবেন । তিনি আরও জানান যে সোনামুখীর কর্মীরা এখনও সেই অবস্থায় পৌঁছতে পারে নি যে তাঁরা অবস্থান বিক্ষোভ করবেন । অন্যদিকে বাঁকুড়া পৌরসভার প্রশাসক অলকা সেন মজুমদার বলেন যে তাঁরা এই বিক্ষোভকারীদের করা শুনলেন । শীঘ্রই এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে । তিনি বলেন যে আন্দোলনের অধিকার সকলেরই আছে তাই এই বিষয়ে তিনি যথেষ্ট সহমর্মিতার সাথে ঊর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here