কবরস্থানের ছেড়ে দেওয়া জায়গায় এলাকাবাসীর উদ্যোগে শিশুদের বিনোদন পার্ক তৈরি নিয়ে বিতর্ক, তৃণমূলের উস্কানিতে বিজেপি কর্মীর জায়গা দখলের অভিযোগ শান্তিপুর থানায়।

0
463

নদীয়া, নিজস্ব সংবাদদাতা:- শান্তিপুর শহরের হরিপুর পঞ্চায়েতের অন্তর্গত মেলের মাঠ দক্ষিণ পাড়া এলাকায়, এলাকাবাসীর উদ্যোগে শিশুদের বিনোদন পার্ক তৈরি করা নিয়ে বিতর্কে তৃণমূল বিজেপি। যদিও এলাকাবাসীদের দাবি কবরস্থান সংলগ্ন হিন্দু ধর্মালম্বী মানুষের বাস। অতীতে কবরস্থানের প্রাচীর নির্মাণের সময়, শিশুদের পার্ক তৈরির জন্য বেশ খানিকটা জায়গা ছেড়ে দেয় কবরস্থান কমিটি। দীর্ঘদিনের জঙ্গল পরিষ্কার করে সেই মতন পার্ক নির্মাণ করতে গিয়ে, বাধার সম্মুখীন হচ্ছেন স্থানীয় প্রোমোটারদের সাথে হাত মেলানো বিজেপি কর্মী নৃপেন মন্ডল।
অন্যদিকে অবশ্য শান্তিপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন তাঁর ঠাকুরদাদার কেনা জমি, স্টার ভোগ দখলসত্ব থাকা সত্ত্বেও এলাকার কিছু তৃণমূল কর্মী সাধারণ মানুষকে উসকে তার জায়গা দখল করতে চাইছে। অতীতেও একবার তার পোল্ট্রির মুরগির ঘরে আগুন লাগিয়ে দিয়েছিলো ওই তৃণমূল কর্মীরা। তিনি বলেন, জমির অধিকার তাদের থাকলে রাতের অন্ধকারে নির্মাণকার্য করছে কেনো? এ প্রসঙ্গে এলাকাবাসীদের দাবি, দরিদ্র প্রধান এলাকা হওয়ার কারণে কাজকর্ম সেরে বিকেলে নিজেরাই সকলেমিলে অর্থ সংগ্রহ করে তা দিয়ে দোলনা, এবং বিনোদন পার্ক এর বিভিন্ন সামগ্রী কিনেছেন। এবং নিজেরাই তা স্থাপন করতে কখনো কখনো রাত হয়ে যাচ্ছে। এলাকাবাসীর সাফ কথা, এর আগে জঙ্গল পরিষ্কারের সময় জমির অধিকার এগিয়ে আসেনি কেউ, জমিটি গোটাপাড়ার প্রায় 200 পরিবারের ছোট ছোট ছেলে মেয়েদের পার্ক করার কথা শুনে, প্রোমোটারি থাবা বসাতে চাইছে ওই বিজেপি নেতা।
যদিও এ প্রসঙ্গে, কবরস্থান কমিটির বর্তমান দায়িত্বপ্রাপ্তরা অতীতের ঘটনা সম্পর্কে খুব বেশি সচেতন না তবুও তারা, সকলের মঙ্গলের জন্য পার্কের পক্ষে মতামত ব্যক্ত করেছেন।
এ প্রসঙ্গে শান্তিপুর ব্লক এ তৃণমূল সভাপতি নিমাই চন্দ্র বিশ্বাস জানান, জমির উপযুক্ত প্রমাণ দেখে আইনে বিচার হবে তবে গ্রামের আট থেকে আশি সকলেই বিজেপি নেতার বিপক্ষে, ওরা নিজেদের স্বার্থ বোঝে, সাধারণ মানুষের কথা কখনো ভাবে না, তাই মানুষের কাছ থেকে বিজেপি ক্রমশ সরে যাচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here