শুধু রাঢ়বাংলা নয় নদীয়াতেও, প্রত্যন্ত গ্রামে আজও লক্ষ্য করা যায় মোরগের লড়াই।

0
714

নিজস্ব সংবাদদাতা, নদীয়া:- বহু প্রাচীনকাল থেকে শীত পড়তেই পুরুলিয়া বাঁকুড়া বীরভূম ঝাড়গ্রাম মেতে ওঠে মোরগ লড়াইয়ের প্রতিযোগিতায়। ঝাড়গ্রাম সহ গোটা জঙ্গলমহলে শীতের মরশুমে শুরু হয় প্রাচীন ঐতিহ্যবাহী মোরগ লড়াই। এটি আদি জনজাতি সম্প্রদায়ের অন্যতম সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। নতুন ফসল তোলার কাজ শেষ হলেই ঝাড়গ্রাম সহ গোটা জঙ্গলমহল জুড়ে শুরু হয় এই মোরগের লড়াই।
তবে নদীয়ার করিমপুর, হরিণঘাটা, সহ বেশ কিছু এলাকার প্রত্যন্ত গ্রামে আজও লক্ষ্য করা যায় মোরগ লড়াই। অতীতে পায়ে চাকু বা ছুরি বেঁধে, এক মোরগ অপর মোড়কে ক্ষতবিক্ষত রক্তাক্ত করে, দুই মোরগ এর মালিক জয়ের বিষয়ে নিশ্চিত হয়ে টাকা লাগায় জুয়ায়। মর্মান্তিক এই রক্তের খেলা নিষিদ্ধ সরকারি নিয়ম অনুযায়ী। তবে চাকু বাধা অনেক জায়গায় উঠে গেলেও আজও রয়ে গেছে মোরগের সাধারণভাবে লড়াই এর খেলা। গোটা শীতকাল অগ্রাহন পৌষ মাঘ ফাল্গুন পর্যন্ত সময়কালে মধ্যে এ ধরনের খেলাকে কেন্দ্র করে গ্রামের মানুষ ভিড় করার ফলে এক উৎসবের চেহারা নেয়। আজ হরিণঘাটার এই রকমই এক চিত্র ধরা পড়লো আমাদের ক্যামেরায়।