পুলিশ কে টাকা দিয়ে মদ ব্যবসা করি,পুলিশ বললে বন্ধ করবো – মদ ব্যবসায়ী।

0
337

সুভাষ চন্দ্র দাশ,ক্যানিং –মদ খেয়ে প্রতি নিয়ত অশান্তি চলছে ক্যানিংয়ের নিকারীঘাটা গ্রাম পঞ্চায়েতের ছোট দুমকি গ্রামের অধিকাংশ পরিবারে এমনই অভিযোগ এলাকার বাসিন্দাদের।অভিযোগ রাতের অন্ধকারের গ্রামের বেআইনি মদ ব্যবসায়ীর বাড়ি থেকে মদ কিনে খেয়ে অসামাজিক কাজকর্ম করছে বহিরাগতরা। এমন কারণে অতিষ্ট হয়ে উঠেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার ক্যানিং থানার অন্তর্গত নিকারীঘাটা গ্রাম পঞ্চায়েতের ছোট দুমকী গ্রামের মানুষজন।এমন ঘটনা থেকে মদমুক্ত গ্রাম গড়তে ডাক দিয়েছিলেন গ্রামের গৃহবধুরা। যেমন কথা তেমন কাজ। মঙ্গলবার বিকালে এলাকার ১০ টি মহিলা গ্রুপের প্রায় শতাধিক মহিলা বেরিয়েছিলেন গ্রামের বেআইনি মদ ব্যবসায়ীদের বাড়িতে মদ বিক্রি বন্ধ করার উদ্যোগ নিয়ে।সুশীলা পৈলান,লক্ষ্মী সরদার,বীথিকা মাইতি,রীতা প্রামাণিক,শেফালি মাইতি,সুমিত্রা সরদার,টুম্পা সরদার,ঝর্ণা দাস,চন্দনা সরদার,বন্দনা সরদার,রুকমানারা গাজী,সালমা,সায়েদা গাজী সহ শতাধিক মহিলার সামনে এক বেআইনি মদ বিক্রেতা গৃহবধু তারস্বরে চিৎকার করে বলেন ‘পুলিশ ও আবগারী কে টাকা দিয়েই মদ ব্যবসা করি। পুলিশ মদ ব্যবসা বন্ধ করতে বললে মদ ব্যবসা বন্ধ করবো।তারপর মদ বিক্রি না করলে খাবো কি?বাড়িতে অসুস্থ স্বামী রয়েছে,কিডনি খারাপ,তারপর মেয়েদের পড়াশোনা খরচ রয়েছে। চলবে কি করে?’
এমন সব প্রশ্নের মুখে পড়ে মহিলারা হাল ছাড়তে নারাজ। তারা মদ ব্যবসায়ীদের বুঝিয়ে বলেন এলাকার পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে।ছোট ছোট ছেলেরাও মদ খাচ্ছে ব্যবসা বন্ধ করতে হবে। প্রয়োজনে অন্য কোন ব্যবসা করুন আমরা অর্থনৈতিক ভাবে সাহায্য করো।
দুমকী আনন্দময়ী উপ সংঘের সভানেত্রী দিপীকা দাস বলেন ‘এলাকায় মানুষজন অনেক সময় মদ খেতে রাস্তাঘাটে মাতলামো করে। পাশাপাশি রাতের অন্ধকারে বহিরাগতরা গ্রামে ঢুকে মদ খেয়ে অসামাজিক কাজকর্মে জড়িয়ে পড়ে।প্রতিনিয়ত এমন ঘটনায় এলাকার পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। আমরা চাই মদমুক্ত গ্রাম গড়তে। তার জন্য আমরা গ্রামের মদ ব্যবসায়ীদের বাড়িতে গিয়ে মদ ব্যবসা বন্ধ করার জন্য সতর্ক করেছি। এমন কি অনেক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে গচ্ছিত মদ টাকা দিয়ে কিনে নিয়ে নষ্ট করে দিয়েছি। কয়েকটি পরিবার তাদের দারিদ্রতার কথা জানিয়েছেন। তারা যাতে অন্য কোন ব্যবসা করতে পারেন তার জন্য আমরা তাদের কে অর্থনৈতিক ভাবে সাহায্য করার আশ্বাস দিয়েছি।’
তিনি আরো বলেন অনেক ব্যবসায়ী পুলিশ ও আবগারীকে টাকা দিয়ে মদ ব্যবসা করেন বলে জানিয়েছেন। আমরা আগামী দিয়ে প্রশাসনের কাছেও এই বিষয় নিয়ে দ্বারস্থ হবো। পাড়া থেকে মদ মুক্ত করার জন্য আমরা আমাদের আন্দোলন জারী রাখবো।আমরা মদ মুক্ত গ্রাম গড়তে চাই।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here