ভলিবল খেলার জন্য ক্লাবের জমিতে খুঁটি পোতাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা, আহত দু’পক্ষের কমপক্ষে ২।

0
619

মনিরুল হক, কোচবিহারঃ ভলিবল খেলার জন্য ক্লাবের জমিতে খুঁটি পোতাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা, আর তার জেরে মাথায় কোপ লেগে আহত দু’পক্ষের কমপক্ষে ২। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার মাথাভাঙ্গা ২ ব্লকের লতাপাতা গ্রাম পঞ্চায়েতের দ্বারিকামারি বাবুরখামার এলাকায়। ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। পড়ে পুলিশ গিয়ে আহতদের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
স্থানীয় সুত্রে জানা গিয়েছে, স্থানীয় জনৈক বাসিন্দা সুবিন বর্মনের সঙ্গে স্থানীয় একটি ক্লাবের জমি দখল করা নিয়ে বচসার জড়িয়ে পরে নরেন বর্মন। বচসা এতটাই জোরালো হয়ে পড়ে যে তার হাতে থাকা ধারালো দাঁ দিয়ে নরেন বর্মন(৩৭) কে কোপ মারে। পড়ে স্থানীয়রা ঘটনাটি বুঝতে পেরে ছুটে এসে আহতকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। অতঃপর স্থানীয় বাসিন্দা এবং ক্লাবের তৎপরতায় নরেন বর্মনকে ঘোকসাডাঙ্গা প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে আসে এবং সেখানে তার চিকিৎসা চলছে। এই ঘটনার জেরে, নরেন বর্মন এর উপর আক্রমণ কারী সুবিন বর্মন (৬০) কে স্থানীয় বাসিন্দারা বেধড়ক মারধর করে এবং তার মাথা ফেটে যায়। ঘটনার খবর পেয়ে ঘোকসাডাঙ্গা থানার ওসি ঘটনাস্থলে পৌঁছান এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। উভয় পক্ষের দু’জনকেই ঘোকসাডাঙ্গা হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা করানো হয় বলে জানিয়েছেন তাঁদের পরিবারের সদস্যরা।
ঘটনার জেরে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। উত্তপ্ত হয়ে ওঠে মাথাভাঙ্গা ২ ব্লকের লতাপাতা গ্রাম পঞ্চায়েতের দ্বারিকামারি বাবু খামার চত্বর। যদিও দুই পক্ষ একে অপরের বিরুদ্ধে আক্রমণের অভিযোগ করেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।
এই বিষয়ে ক্লাবের সদস্য শান্ত বর্মন বলেন, দীর্ঘদিন থেকে জমিটি ক্লাবের দখলে আছে। তারা ক্লাবের জমিতেই ভলিবল খেলার জন্য খুঁটি পুঁতছিল সেই সময় আচমকাই স্থানীয় সুবিন বর্মন ক্লাবের সদস্য নরেন বর্মনের গলায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপ দেয়।
অপরদিকে সুবিন বর্মনের জামাই মনীশ রায় বলেন, জমিটি তার শ্বশুরের, স্থানীয় ক্লাব সদস্যরা তার শ্বশুরের জমিটি জবর দখল করে রেখেছে এর প্রতিবাদ করায় তার শশুরকে বেধড়ক মারধর করেছে স্থানীয় ক্লাবের সদস্যরা।