স্বচ্ছ ক্যানিং গড়ার লক্ষ্যে জন্মদিনেই শপথ।

0
450

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা, নিজস্ব সংবাদদাতা:- জন্মদিনেই শপথ নিলেন তিনি।সোমবার ছিল তাঁর ৪৪ তম জন্মদিন। তিনি ক্যানিং মহকুমার ক্যানিং পশ্চিমের নবনির্বাচিত কনিষ্ঠতম বিধায়ক। পরেশরাম দাস। ছোট থেকেই অত্যন্ত দারিদ্রতার সাথে লড়াই করে আজ প্রতিষ্ঠিত হয়েছেন।অতিতের সেই দুঃখ,যন্ত্রণা,দারিদ্রতার অভিশাপ আজও তিনি ভোলেননি। আর সেই কারণেই ছোট থেকে অসহায় দরিদ্র মানুষের সেবায় নিজেকে ওতপ্রত ভাবে জড়িয়ে রেখে আজ তিনি সাফল্যের অধিকারী।৪৪ তম জন্মদিন উপলক্ষে আবারও শপথ নিলেন তিনি।আজীবন দরিদ্র অসহায় মানুষের সেবায় কাজ চালিয়ে যেতে বদ্ধ পরিকর।পাশাপাশি নিজের বিধানসভা এলাকা ক্যানিং পশ্চিম কে স্বচ্ছ পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন বিধানসভা কেন্দ্র হিসাবে জনসমকক্ষকে তুলে ধরার জন্য অঙ্গীকার বদ্ধ হলেন তিনি।

শুধুমাত্র অঙ্গীকার বদ্ধ হয়ে থেমে থাকতে নারাজ তিনি।শপথ নেওয়ার সাথে সাথে নেমে পড়লেন ক্যানিং শহরের রাজপথে। ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার করার কাজে হাত লাগালেন তিনি।

জন্মদিনে বিধায়কের এমন উদ্যোগ স্বচক্ষে দেখলেন ক্যানিং শহরের অগণিত সাধারণ মানুষ। তাঁরা বিশ্বাস করতেই পারছিলেন না যে বিধায়ক এমন কাজ করতে পারেন।পরে অবশ্য বিধায়ক কে প্রশংসা করে তারিয়ে তারিয়ে উপভোগ করলেন বিধায়কের সামাজিক কর্মযঞ্জ কে।

উল্লেখ্য বিগত কয়েকদিন আগেই ক্যানিংয়ের স্পোর্টস কমপ্লেক্স ময়দানের বিপরীত দিকের ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার করে স্বচ্ছ পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন ক্যানিং গড়ার ডাক দিয়েছিলেন বিধায়ক। সোমবারও আবার পথে নামলেন তিনি।

বিধায়ক জানিয়েছেন ‘পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকলে একদিকে যেমন রোগ-জীবাণু ধ্বংস হবে,তেমনই সুস্থ পরিবেশ গড়ে উঠবে।সাধারণ মানুষের পাশে থেকে আগামী দিনে স্বচ্ছ ক্যানিং গড়ে তুলতে চাই’।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here