বিজেপির কনভেনার ও ব্লক সভাপতি দল ছাড়ার ঘোষনা করলেন দুবরাজপুরে।

0
236

বীরভূম, সেখ ওলি মহম্মদঃ- দল বদলের হিড়িক অব্যাহত। বিজেপির অন্দর মহলে চলছে টানাপোড়েন। কেউ বা বিজেপির হোয়াটস্‌এপ গ্রুপ ছেড়ে বেরিয়ে যাচ্ছেন। তারপর আবার সামনে পৌর নির্বাচন। আর এই পৌর নির্বাচনের আগেই বীরভূম জেলার দুবরাজপুরে বিজেপির ভাঙন দেখা গেল। আজ দুবরাজপুর বিধানসভার কনভেনার প্রভাত চ্যাটার্জি ও দুবরাজপুর বিজেপির ব্লক A মণ্ডলের সভাপতি সাধন ধীবর সহ সমস্ত কার্যকর্তা বিজেপি দল ছাড়ার ঘোষনা করলেন। এ বিষয়ে দুবরাজপুর বিধানসভার কনভেনার প্রভাত চ্যাটার্জি জানান, আমি ১৯৯৮ সাল থেকে তৃণমূল কংগ্রেস করে আসছি। মাঝে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলাম। কিন্তু বিজেপি দলটা হিন্দু হিন্দু করে ব্যবসা করে। তাঁরা নিজেদের আখের গোছায়। বিজেপি নেতৃত্ব পায়ের নখ থেকে মাথার চুল পর্যন্ত নোংরা এবং অসৎ। যে কদিন ছিলাম অত্যন্ত কষ্টের মধ্যে ছিলাম। তাই মমতা ব্যানার্জির উন্নয়নের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে আজ আমরা দল ছাড়ার ঘোষনা করলাম। আগামী দিনে আমরা তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের হাত ধরে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করব। অন্যদিকে দুবরাজপুর শহর তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি মানিক মুখার্জী জানান, তাঁরা নিজেদের ভুল বুঝতে পেরে দল ত্যাগ করেছেন। তৃণমূল কংগ্রেস শক্তিশালী ছিল, আছে এবং থাকবে। যাঁরা বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে আসছেন তাঁদেরকে স্বাগত জানাই। পাশাপাশি দুবরাজপুর বিধানসভার বিধায়ক অনুপ কুমার সাহা জানান, আমরা বিজেপির প্রতিটি কার্যকর্তাকে যোগ্য সম্মান দিয়েছি। বিজেপি দল একটা নীতি মেনে চলে। আর যাঁরা বিজেপি ত্যাগ করল তাঁদের অস্তিত্বহীনতার বিষয় আছে। আসন্ন পৌর নির্বাচনে আমাদের শক্তি হ্রাস হইনি। আমরা এখন বিপুল ভোটে জয়লাভ করব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here