গোয়ালতোড় থানার বড়ডাঙ্গা এলাকায় জেসিবি মেশিন দিয়ে মাটি কাটার সময় উদ্ধার কয়েক বস্তা পুরনো বন্দুক ও কার্তুজ এলাকায় চাঞ্চল্য ,তদন্তে পুলিশ।

0
603

নিজস্ব সংবাদদাতা, পশ্চিম মেদিনীপুর:- রাস্তার কাজের মাটির ব্যবহারের জন্য জেসিবি মেশিন দিয়ে মাটি কাটার সময় বুধবার মাটির ভেতর থেকে পলিথিনে মোড়া বেশ কয়েক বস্তা পুরনো বন্দুক ও কার্তুজ উদ্ধারের ঘটনায় রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার গড়বেতা ৩ নম্বর ব্লকের ৮ নম্বর নলবনা অঞ্চলের বড়ডাঙ্গা এলাকায়। ওই এলাকায় মাটির রাস্তার কাজে শ্রমিকরা ফোন করে গোয়ালতোড় থানার পুলিশকে জানায় ।ওই ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় গোয়ালতোড় থানার পুলিশ। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ কয়েক বস্তা পুরানো বন্দুক ও কার্তুজ উদ্ধার করে নিয়ে যায়। কোথা থেকে এত সংখ্যক বন্দুক ও কার্তুজ ওই এলাকায় এলো তার তদন্ত শুরু করেছে গোয়ালতোড় থানার পুলিশ।

পুলিশ সুপার দিনেশ কুমার জানিয়েছেন এই দিন ৩৬টি ক্ষতিগ্রস্ত বন্দুক এবং ৪০০ থেকে ৪৫০ কার্তুজ উদ্ধার করেছে পুলিশ,এইদিন কাজ করতে থাকা এক শ্রমিক জানান বড়ডাঙ্গা এলাকায় থাকা একটি তাল গাছের নিচ থেকে জেসিবি মেশিন দিয়ে মাটি কাটার সময় জেসিবি মেশিনে পলিথিন দিয়ে মোড়া বেশ কয়েকটি বস্তা উঠে আসে।সেই বস্তায় প্রচুর বন্দুক ও কার্তুজ রয়েছে বলে তারা দেখতে পায়।যার ফলে কাজ করতে থাকা শ্রমিকেরা কাজ বন্ধ করে পুলিশ কে বিষয়টি জানায়।পুলিশ ওই বস্তার ভিতর থেকে পুরোনো বন্দুক ও কার্তুজ গুলি উদ্ধার করে নিয়ে যায়।তবে উদ্ধার হওয়া বন্দুক গুলিতে জং ধরে গিয়েছে। উদ্ধার হওয়া কার্তুজ গুলি তাজা রয়েছে কিনা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। কারা কি কারণে ওই এলাকায় মাটি চাপা দিয়ে বন্দুক ও কার্তুজ রেখেছিল তা খতিয়ে দেখার জন্য গোয়ালতোড় থানার পুলিশ তদন্তের কাজ শুরু করেছে। তবে ওই ঘটনার ফলে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here