পূর্ব মেদিনীপুর জেলার তমলুক গ্রামীণ চক্রের অন্তর্গত ধলহরা হিন্দুবোর্ড প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষিকা বৃন্দ নিজ উদ্যোগে বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের সপ্তাহে একদিন করে পাঠদান প্রক্রিয়া চালিয়ে যাচ্ছেন।

0
276

নিজস্ব সংবাদদাতা, পূর্ব মেদিনীপুর:- পূর্ব মেদিনীপুর জেলার তমলুক গ্রামীণ চক্রের অন্তর্গত ধলহরা হিন্দুবোর্ড প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষিকা বৃন্দ নিজ উদ্যোগে বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের সপ্তাহে একদিন করে পাঠদান প্রক্রিয়া চালিয়ে যাচ্ছেন। বিদ্যালয় খেলার মাঠ সংলগ্ন আমবাগানে সোমবার থেকে শনিবার চতুর্থ শ্রেণি থেকে শিশু শ্রেণি পাঠদান প্রক্রিয়া চলে। অভিভাবকরাও এই প্রক্রিয়ায় অত্যন্ত উৎসাহী । তারা শিক্ষকদের কাছে অনুরোধ করেছিলেন এভাবেই আপনারা পাঠদান প্রক্রিয়া চালানো জন্য, যতদিন না পর্যন্ত সরকারী ভাবে বিদ্যালয় পঠন-পাঠন শুরু না হয়। সেই মতো শিক্ষক-শিক্ষিকাগণ নতুন শিক্ষাবর্ষ ২০২২এ পড়ানো শুরু করেছেন। বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সতীশ সাউ বলেন
” বর্তমানে হাট-বাজার, অফিস-আদালত, বাস-ট্রেন, এমনকি সিনেমা ,শপিং মল, এমনকি বিয়ে বাড়ির সমস্ত কিছু ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে। প্রাথমিক স্তর গত ২ বছর বন্ধ থাকার কারণে ছাত্রছাত্রীরা অক্ষর জ্ঞান হারিয়ে ফেলছে, পড়াশোনায় অমনোযোগী, এমনকি মানসিক বিকারগ্রস্ত হচ্ছে। আন্তর্জাতিক এবং জাতীয় ক্ষেত্রে স্বাস্থ্য সংস্থা হু, বিশ্বব্যাঙ্ক, ইউনেস্কো, আই সি এম আর, এইমস বিদ্যালয় চালুর ক্ষেত্রে মতামত দিয়েছে। কিন্তু রাজ্য সরকার কোনো এক অজ্ঞাত কারণে পঠন পাঠন চালু করছে না। আমরা মনে করি অবিলম্বে বিদ্যালয় পঠন-পাঠন শুরু করা দরকার। “এই বিষয়ে সে বিষয়ে স্কুলের প্রধান শিক্ষক জানান এলাকার সমস্ত ছাত্র-ছাত্রী থেকে শুরু করে অভিভাবকরা চাইছে পড়াশোনার অগ্রগতি বজায় রাখতে, তাই তারা আগ্রহী হয়ে পড়েছে, আমরা চাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে পঠন-পাঠন চালাতে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here