স্কুল খোলার দাবিতে বিক্ষোভ কর্মসূচি নিখিল বঙ্গ শিক্ষক সমিতির।

0
259

আবদুল হাই, বাঁকুড়া :- করোনার কারণে বিগত দুবছর থেকে গোটা দেশের সাথে সাথেই রাজ্য প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ আছে যার ফলে শিশুদের শিক্ষার ক্ষেত্রে অসুবিধা সৃষ্টি হচ্ছে এর বিরুদ্ধে আজ বাঁকুড়া কাটজুড়িডাঙ্গা এলাকায় নিখিলবঙ্গ শিক্ষক সমিতির পক্ষ থেকে একটি বিক্ষোভ কর্মসূচি নেওয়া হয় স্কুল খোলার দাবিতে নিখিলবঙ্গ শিক্ষক সমিতির সদস্য এবং কর্মীবৃন্দ রাজপথ অবরোধ করেন তাদের দাবি অবিলম্বে সমস্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রাথমিক স্কুল খুলতে হবে কারণ এর ফলে শিক্ষাক্ষেত্রে অন্ধকার নেমে আসছে এ বিষয়ে সংগঠনের এক আধিকারিক দেবাশীষ রায় জানান যে তারা করোনা সংক্রমনের প্রথম পর্যায়ে স্কুল বন্ধের ব্যাপারটা কি মেনে নিয়েছিলেন কারণ তখন করো না ভয়ঙ্কর রূপে সবার সামনে এসেছিল কিন্তু আস্তে আস্তে দেখা যাচ্ছে যে জিম সিনেমা হল সহ অন্য সমস্ত কিছু খোলা হচ্ছে একমাত্র স্কুল বন্ধ রাখা হচ্ছে এটা তারা মেনে নিতে পারছেন না তাদের দাবী যেন সমস্ত রকম করণা বেঁধে নিষেধ কে মেনে স্কুল খোলা হয় এবং এর জন্য যারা শিক্ষক এবং বিশেষজ্ঞ তাদের সাথে কথাবার্তা বলে একটা রাস্তা বের করতে হবে তিনি বলেন যে শিশুরা স্কুল থেকে বঞ্চিত হচ্ছে এবং বহু শিশু এই সময় কাজে যোগ দিচ্ছে যার ফলে আগামী দশ বারো বছরের মধ্যে শিশু শ্রমিকের সংখ্যা ভয়ঙ্কর রূপে বেড়ে যাবে তিনি জানান যে এই করোনাকালে অনলাইনে লেখাপড়া হচ্ছে কিন্তু আমাদের দেশের 70 থেকে 80 শতাংশ মানুষের কাছে অনলাইনে লেখাপড়া করার সামর্থ্য নেই তাই যারা আর্থিক ভাবে তেমন সক্ষম নন তারা শিক্ষার থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন তাই তাদের দাবি অবিলম্বে মেনে স্কুল খোলা হয় তিনি জানান যে তাদের দাবি মানা না হলে আগামী দিনে তারা বৃহত্তর আন্দোলনের পথে হাঁটতে বাধ্য হবেন অন্যদিকে নিখিলবঙ্গ শিক্ষক সমিতির বাঁকুড়া জেলা সেক্রেটারি বিমান পাত্র বলেন যে গত 34 বছরে যেখানে পাঠান পাঠান এর উন্নতি সাধন করা হয়েছিল আজ সেখানে শিক্ষা মন্ত্রী বলছেন যে পাড়াতে পাঠশালা খোলা হবে তিনি তীব্র বিরোধিতা করে বলেন যে সমস্ত করণা বেঁধে মেনে অবিলম্বে পাঠশালা খুলতে হবে তিনি উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন যে সংবাদ মাধ্যমের দ্বারা তারা সরকারকে বার্তা যেতে চান যে অবিলম্বে স্কুল-কলেজসহ সমস্ত শিক্ষণ সংস্থা খুলতে হবে যাতে ছাত্র-ছাত্রীদের ভবিষ্যৎ অন্ধকার নিমজ্জিত না হয় তিনি বলেন যে আজ তারা প্রতিটি পথ অবরোধ করলেন যদি আগামী দিনে তাদের দাবী মান্য না করা হয় তাহলে তারা বৃহত্তর আন্দোলনে যাবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here