বাগদেবীর আরাধনায় জমজমাট পূর্ব মেদিনীপুর জেলা,খুশির হাওয়া পড়ুয়াদের মধ্যে।

0
302

নিজস্ব সংবাদদাতা,পূর্ব মেদিনীপুর:- শনিবার বাঙালির অন্যতম পূজো সরস্বতী পূজো।ছাত্রছাত্রীদের বিদ্যার দেবী সরস্বতী পূজিতা হন স্কুল কলেজ থেকে বাড়িতেও।তবে গত দুবছর কোভিড পরিস্থিতিতে বেশ কিছুটা আনন্দে ভাটা পড়ে ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে।কারন দীর্ঘ দুই বছর বিদ্যালয় বন্ধ ছিলো।তবে রাজ্য সরকারের নির্দেশে স্কুল কয়েকদিন আগেই খুলেছে।ফলে বেশকিছুটা খুশি।তবে সব ক্লাস এখনো শুরু হয়নি,তাই পঞ্চম থেকে সপ্তম শ্রেনীর ছাত্রছাত্রীরা এখনো আসতে পারেনি।তবে আজ সরস্বতী পূজো উপলক্ষে পঞ্চম থেকে দ্বাদশ শ্রেনীর ছাত্রছাত্রীরা উপস্থিত হয়েছে সকাল থেকে তাদের প্রিয় বিদ্যালয়ে।এমনই ছবি ধরা পড়লো পূর্ব মেদিনীপুরের কোলাঘাট ব্লকের ক্ষেত্রহাট হাইস্কুলে।এইদিন সকাল থেকে স্কুলের ইউনিফর্ম বাদে রঙিন পোষাকে উপস্থিত হয় পুষ্পাঞ্জলি দেওয়ার উদ্দেশ্যে সকল ছাত্র ছাত্রীরা। তবে স্কুলের প্রধান শিক্ষক অমলেন্দু ঘড়া জানান,আজ পূজো উপলক্ষে সম্পর্ণ কোভিড নিয়ম বিধি মেনেই পূজোঅর্চনা করা হচ্ছে।তবে এই পূজোতে দীর্ঘদিন পর স্কুলে এসে ছাত্রছাত্রীরা তাদের বন্ধুদের পেয়ে আনন্দেই স্কুলে পূজোর দিনটি উপভোগ করছে। পাশাপাশি একই চিত্র উঠে এলো কোলাঘাট কোলা ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ে, তবে একদিকে পুজোর আনন্দ এবং অন্যদিকে বহুদিন বাদে স্কুলের সমস্ত বন্ধু-বান্ধবের সঙ্গে মিলিত হতে পেরে খুশি হওয়া ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে, পাশাপাশি কোলাঘাট বড়িশা স্বামীজী একাডেমি সরস্বতী পুজোতেও একই চিত্র উঠে এলো, এইদিন স্বামীজি একাডেমির সাধারণ সম্পাদক বিশ্বনাথ দাস বলেন দীর্ঘ দুই বছর ধরে মহামারী করোনাভাইরাস থেকে রক্ষার থে বন্ধ ছিল বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গুলি পাশাপাশি সরকারি গাইডলাইন মেনে সময় দূরত্ব বজায় রেখে পূজো পার্বণ করলেও বন্ধ হয়েছিল বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, তবে ধীরে ধীরে এই ভাইরাসের প্রকোপ কিছুটা কমতে শিথিল করে দেওয়া হয়েছে রাজ্য প্রশাসনের তরফ থেকে, তবে সব মিলিয়ে ছাত্র-ছাত্রীর থেকে শুরু করে এলাকার কচিকাঁচাদের এই উপলক্ষে এইবারের আনন্দটা একটু অন্যরকম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here