ভ্যালেন্টাইন্স ডে এর একদিন আগে ক্ষীরাই ফুলের বাগানে উপচে পড়ল ভিড়।

0
287

নিজস্ব সংবাদদাতা,পূর্ব মেদিনীপুর:- পূর্ব মেদিনীপুর জেলার ক্ষীরাই মানে ফুলের সমারোহে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে সুসজ্জিত বাহারি ফুলের বাগান। বাগানের সৌন্দর্য আরও শ্রীবৃদ্ধি করে সব গাছ ছাড়িয়ে এক পায়ে দাঁড়িয়ে আকাশে উঁকি মারছে তাল গাছ। তাঁর পাশ দিয়ে ব্রীজের ওপর দিয়ে ছুটে চলেছে কু ঝিক ঝিক রেল। যেখানে অক্লান্ত পরিশ্রম করে মাটিতে চারা রোপনের মধ্য দিয়ে ফুল ফুটিয়ে বাগানের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করে থাকেন চাষীরা। আর সেই চাষের বাগান মানুষের কাছে ধীরে ধীরে হয়ে উঠেছে ছোট্ট পর্যটন কেন্দ্র।
জেলার পাঁশকুড়ার পর্যটন কেন্দ্র বলতে রুপনারায়ন নদী লাগোয়া ফুলের শহর ক্ষীরাইয়ের দোকান্ডা ফুল বাগান। সেই ক্ষীরাই আজ হয়ে উঠেছে সময় কাটানোর ছোট্ট পর্যটন কেন্দ্র। শীতের আমেজ কাটিয়ে বসন্তের দোরগোড়ায় প্রায় ছুঁই ছুঁই, তবু ফুল বাগান ঘিরে মানুষের উদ্দীপনা কমেনি,আবেগী মন ছুটে চলেছে সৌন্দর্যায়ন ফুল বাগানে।
যেখানে কিছুদিন আগে রাজ্য সরকারের আদেশনুসারে ডকুমেন্ট ফিল্মের শ্যুটিং হয়েছিল ওই ক্ষীরাই ফুলের বাগানে। শ্যুটিং স্পটে উপস্থিত থেকে ফুল বাগান পরিদর্শনের পাশাপাশি ডকুমেন্ট ফিল্মে অংশগ্রহণ করতে দেখা গিয়েছিল মৎস্যমন্ত্রী অখিল গিরিকে। যেখানে মন্ত্রী মহোদয় স্বয়ং বেড়াতে গিয়েছেন সেখানে সাধারণ মানুষ বাদ থাকে কেন ! তাই কলকাতা,হাওড়া,সহ বিভিন্ন জেলার পাশাপাশি অস্ট্রেলিয়া থেকেও পর্যটকরা এই ফুলের বাগান ঘুরে গিয়েছেন। শীতকালীন সময়ে ফুল ফুটলে তাঁর সৌন্দর্য দেখার জন্য বাগানে উপচে পড়ে ফুল প্রেমীদের ভিড়।
এমনকি ওখানকার চাষিরা বাগানের ফুল দিয়ে মাথার হেয়ারব্যান তৈরি করে বিক্রি করছেন ,আর তা দাম দিয়ে কিনেও নিচ্ছে পর্যটকেরা। ওই বাগান ঘিরে গড়ে উঠেছে নানান মুখরোচক খাবারের দোকান,হোটেল। তবে অন্যদিকে চাষীরা কিছুটা ক্ষোভ প্রকাশ করে তাঁদের ক্ষতির কথা বলতে শোনা গিয়েছে। ফুলপ্রেমীদের উপচে পড়া ভিড়ে হয়রানি পেতে হচ্ছে চাষিদের। কারন কেউ গাছ থেকে ফুল ছিঁড়ে নিচ্ছে, কেউ বা অজান্তে পা তুলে গাছ ভেঙে ফেলছে। তবু ক্ষীরাইকে ঘিরে মানুষের উদ্দীপনা দেখে খুশি স্থানীয় চাষীরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here