বাঁকুড়া পৌরসভার বিজেপি প্রার্থী পেশায় খবরের কাগজ বিক্রেতা।

0
348

আবদুল হাই, বাঁকুড়াঃ একটা নির্বাচন মানে যুযুধান দুই পক্ষের রাজনৈতিক লড়াই আর নির্বাচনের প্রার্থী মানিক ঝাঁ-চকচকে জামাকাপড়,ঘটা করে প্রচার আর দলীয় কর্মী সমর্থকদের নিয়ে স্লোগান দিতে দিতে রাস্তায় মিছিল। না এসব কিছুই না এই পৌরনির্বাচনে বাঁকুড়া পৌরসভার ২২ নম্বর ওয়ার্ডে এবার বিজেপির টিকিটে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন রূপেন লোহার,যিনি পেশায় একজন পেপার বিক্রেতা। সকাল হলেই রোজনামচা হিসেবে সাইকেল নিয়ে পেপার বিলি করতে বেরিয়ে পড়েন রুপেন বাবু,দিনের শেষে ফিরে এসে চলছে পুরো দমে বাড়ি বাড়ি গিয়ে প্রচার। ঐ ওয়ার্ডেই রুপেন বাবুর বিপক্ষে যেখানে তৃণমূলের তাবড় তাবড় নেতারা প্রচার চালাচ্ছেন,সেখানে মানুষের ভালোবাসাকে একমাত্র হাতিয়ার করে নির্বাচনের বৈতরণী পার করতে চান তিনি। দিনের শেষে কর্ম জীবন শেষ করে গুটিকয়েক কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে প্রচারে সারছেন।রুপেন বাবু জানান অধিকাংশই তার সমর্থকরা দিনমজুরের কাজ করেন, তাই কর্ম শেষে দিনান্তেই প্রচার করছেন তিনি। গত ২০১৮ সালে এপ্রিল মাসে এক পথদুর্ঘটনায় তিনি তার একমাত্র ছেলেকে ছেলেকে হারান,এই দুঃখকে পাশে রেখে দিনের শেষে নিজের দলকে ভালোবেসে হাসিমুখে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন এবং প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন বছর পঞ্চান্নর এই রুপেন বাবু। তিনি এও জানান বছরের সারা সময়ই প্রতিনিয়ত তার কর্মের জেরে মানুষের সাথে যোগাযোগ থাকে তাই তিনি মানুষের ভালোই সাড়া পাচ্ছেন এবং তিনি তার জয়ের ব্যাপারে একশো শতাংশ আশাবাদী।

নির্বাচনে হারজিত তো আছেই,সব দলই নিজেদের প্রচার চালাতে মরিয়া, কেউ কাউকে এক চুল জায়গা ছাড়তে নারাজ। একবার নির্বাচনে জয় মানে পাঁচ বছর নিশ্চিন্তে ক্ষমতা যাপন। তবে এইসব ব্যতিরেকে সমাজের এই ধরনের মানুষদের নির্বাচনের প্রতিদ্বন্দিতা কোনো সংশয় ছাড়াই বিরল দৃশ্য। আগামী নির্বাচনের ফলাফলে শেষ হাসিটা যেই হাসুক,এই ধরনের দৃষ্টান্ত অনন্য।

বাইট- রুপেন লোহার(২২ নং ওয়ার্ড বিজেপি প্রার্থী)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here