মল্লিক পরিবারের সদস্যরা এই মুহূর্তে চরম উদ্বেগ আর উৎকণ্ঠায় দিন কাটাচ্ছেন কবে ঘরের ছেলে ঘরে ফিরবে।

0
350

আবদুল হাই, বাঁকুড়াঃ রাশিয়া ইউক্রেন যুদ্ধের খবরে খুব উদ্বিগ্ন বাঁকুড়ার জঙ্গল মহলও। বাঁকুড়া জেলার খাতড়ার মল্লিক পরিবারের সদস্যরা এই মুহূর্তে চরম উদ্বেগ আর উৎকন্ঠায় দিন কাটাচ্ছেন। কবে বাড়ির ছেলে বাড়ি ফিরবে।

মল্লিক পরিবার সূত্রে জানা গেছে, ছোটো থেকে মেধাবী হিসেবে পরিচিত তন্ময় মল্লিকের বাড়ি শিলদা। তবে প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের পড়াশুনা খাতড়া শহরের জলডোবরার মামাবাড়ি থেকে। পরে এখানে পড়াশোনা শেষ করেই ২০২০ সালের ১৩ ডিসেম্বর রওনা দেয় ইউক্রেনে। রাজধানী কিয়েভ থেকে ৯০০ কিলোমিটার দূরে চের্নিভিস্তির বুকোভিনো মেডিকেল ইউনিভার্সিটিতে ভর্তি হয় সে। বর্তমান যুদ্ধ পরিস্থিতিতে দ্বিতীয় বর্ষের এই ছাত্রের বাড়ি ফেরার অপেক্ষায় দিন গুনছেন মামা দাদু অজিত মল্লিক, ঠাকুমা মীরা মল্লিক, মামা বাপ্পাদিত্য মল্লিকরা।

এই মুহূর্তে সরাসরি তন্ময়ের সাথে মামাবাড়ির কারো কথা না হলেও তার হোয়াটসঅ্যাপ স্টেটাস থেকে কিছুটা নিশ্চিন্ত তাঁরা। গতকাল রাত্রে সে হোয়াটসঅ্যাপে স্ট্যাটাসে লিখেছে, ‘আমি ইউক্রেন রোমানিয়া বর্ডার যাওয়ার জন্য বেরিয়ে পড়েছি। আমি আমার ফোন বেশি ব্যবহার করতে পারবোনা কারণ আমার কাছে পাওয়ার ব্যাংক নেই, আমাকে ব্যাটারি একটু হলেও সেভ রাখতে হবে, যদি কেউ আমাকে কল অথবা ম্যাসেজ করে তাহলে আমি তাদের কল বা মেসেজ রিসিভ করতে পারবো না। এজন্য খুবই দুঃখিত, আশা করি আমার পরিস্থিতি আপনারা বুঝতে পারছেন, হোয়াটসঅ্যাপ স্ট্যাটাস এর মাধ্যমে জানতে পারবে আমার অবস্থান কোথায়’ ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here