হাত থেকে দেশের জাতীয় পতাকা একটি বারের জন্যেও নড়তে দেয়নি ইউক্রেনের জাফ্রোজিয়া স্টেট মেডিকেল ইউনিভার্সিটির পড়ুয়া মহাম্মদ আরিফ।

0
704

নিজস্ব সংবাদদাতা, মালদাঃ- ১ ব্লকের সামসি অঞ্চলের ভগবানপুর গ্রামে সোমবার সন্ধ্যায় পা রাখেন। দেশে ফিরলেও তার চোখে-মুখে যুদ্ধের আতঙ্ক ও ভয়াবহতা ফুটে উঠেছে। হাত থেকে দেশের জাতীয় পতাকা একটি বারের জন্যেও নড়তে দেয়নি ইউক্রেনের জাফ্রোজিয়া স্টেট মেডিকেল ইউনিভার্সিটির পড়ুয়া মহাম্মদ আরিফ। তার মত আরো পনেরোশো ভারতীয় পড়ুয়া ওই মেডিকেল ইউনিভার্সিটিতে ডাক্তারি পড়ছিলেন। হাঙ্গেরির বুদাপেস্টে ভারতীয় দূতাবাস কর্মীদের পূর্ণাঙ্গ সহযোগিতায় দেশে ফিরতে পারলেও ।

সোমবার সন্ধ্যায় আরিফের সঙ্গে দেখা করেন রতুয়া থানার আইসি সুবীর কর্মকার ও ডিএসপি সব্যসাচী ঘোষ। আরিফের হাতে ফুলের স্তবক তুলে দেওয়ার পাশাপাশি যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেনে তার সল্প অভিজ্ঞতার বর্ণনাও শোনেন।

এছারাও মালদা জেলা পরিষদের
সভাধিপতি এটিএম রফিকুল হোসেনও আরিফের সঙ্গে দেখা করে তাকে শুভকামনা জানানোর পাশাপাশি তাদের পড়াশোনা যাতে মাঝপথে বন্ধ না হয়ে যায় সেজন্য জেলাশাসকের মাধ্যমে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে বিষয় নিয়ে জানানো হবে।