মামার বাড়িতে গিয়ে গঙ্গার জলে স্নান করতে নেবে এক কিশোরের জলে ডুবে মৃত্যুর ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য।

0
140

নদীয়া, নিজস্ব সংবাদদাতা:-  মামার বাড়িতে গিয়ে গঙ্গায় স্নান করতে নেবে মাত্র 12 বছর বয়সী এক কিশোরের জলে ডুবে মৃত্যুর ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য। শোকস্তব্ধ গোটা পরিবার, এলাকায় নেমে আসে শোকের ছায়া। জানা যায় শান্তিপুর ৯ নম্বর ওয়ার্ডের অন্তর্গত বেড় পাড়া এলাকার মাত্র ১২ বছর বয়সী কিশোর আরিফ শেখ, শনিবার বেলা বারোটা নাগাদ বাড়ি থেকে বেরিয়ে শান্তিপুর মালঞ্চ এলাকায় মামার বাড়িতে যায়। এরপরে মামার ছেলে ও আরো এক বন্ধুকে সাথে নিয়ে শান্তিপুর নৃসিংহপুর পুর কালনা ঘাটের স্নানঘাটে জায় স্নান করতে। এর পরেই আরিফ শেখের মামার ছেলে ও আরো এক বন্ধু অন্যত্র চলে যায়, বেশ খানিকটা সময় বাদে স্নান ঘাটে এসে দেখে আরিফ শেখ কে আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না, কিন্তু স্নানঘাটের পাশেই আরিফ শেখের জুতো, জামা, প্যান্ট সাইকেলের উপরে পড়ে রয়েছে। তখনই আরিফ শেখের মামার ছেলে খবর দেয় পরিবারকে, খবর পাওয়া মাত্রই ঘটনাস্থলে আসে পরিবার ও শান্তিপুর থানার পুলিশ। পুলিশের উপস্থিতিতে পরিবারের লোকজন প্রাথমিকভাবে গঙ্গাই ওই কিশোরের দেহর খোঁজে তল্লাশি চালানো শুরু করে। যদিও বেশ খানিকটা সময় প্রাথমিকভাবে তল্লাশি চালানোর পর গঙ্গা থেকে উদ্ধার হয় কিশোরের দেহ। তড়িঘড়ি শান্তিপুর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করে। এর পরেই কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে কিশোরের গোটা পরিবার, এছাড়াও এলাকায় নেমে আসে শোকের ছায়া। যদিও পরিবারের দাবি, ১২ বছর বয়সী ওই কিশোর সাঁতার জানত না, এই প্রথম মামার বাড়িতে গিয়ে গঙ্গায় স্নান করতে যাই আর প্রথম গঙ্গায় স্নান করতে নেমে ঘটে দুর্ঘটনা। মৃতদেহটি উদ্ধার করেছে শান্তিপুর থানার পুলিশ এছাড়াও ওই কিশোরের কিভাবে গঙ্গার জলে ডুবে মৃত্যু হল তা খতিয়ে জানার চেষ্টা করছে শান্তিপুর থানার পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here