ভোট গ্রহনের সময় পেড়িয়ে গেলেও রাজ্য বিজেপির সভাপতির মুখে ফের রাজ্যে কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়েই নির্বিঘ্নে ভোট করানোর দাবি।

0
242

বালুরঘাট, নিজস্ব সংবাদদাতা:- ভোট গ্রহনের সময় পেড়িয়ে গেলেও রাজ্য বিজেপির সভাপতির মুখে ফের রাজ্যে কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়েই নির্বিঘ্নে ভোট করানোর দাবি।আজ রাত্রে বালুরঘাটে দলিয় কার্যালয়ে ভোট পরিস্থিতি নিয়ে এক সাংবাদিক বৈঠকে রাজ্য বিজেপির সভাপতি সুকান্ত মজুমদার এই দাবি করেন। পাশাপাশি তিনি এদিনের ভোটকে ছাপ্পা ভোট বা ফেক ভোট বলেও উল্লেখ করেন। তার দাবি যারা এই ফেক ভোটে জিতে আসবেন তাদের মানুষ নকল প্রার্থী বলে সম্বোধন করবে বলে জানান সুকান্ত।
রাজ্যে এই ভোটে একদিনে ১৬ জনের মৃত্যুর মধ্যে ১৩ জনই শাসক দলের বিরোধীদের মাত্র ৩ জন, এই প্রসংগে তার মন্তব্য এতেই প্রমান হয় প্রশাসন কত ব্যার্থ, পাশাপাশি তার অভিযোগ রাজ্যে ফেয়ার ভোট হলে একজনেরও কেন মৃত্যু হবে, এটাই তো প্রশাসনের ব্যার্থতা। মৃত্যুর সংখ্যা কমত যদি পুলিশের গুলিতে ২ জনের মৃত্যু বা পুলিশ যদি শুন্যে গুলি ছুড়ে ভয় দেখাত বলে তিনি মন্তব্য করেন। এরপাশাপাশি তার দাবি এক্ষেত্রে যা ঘটেছে তা নিজেদের মধ্যে দ্বন্দের জেরেই প্রানহানীর ঘটনা ঘটেছে। তারা ইতিমধ্যেই বিরোধী দলনেতার মধ্যমে নির্বাচন কমিশন ও মংগলবার আদালতে যাচ্ছি।

রাজ্য বিজেপির সভাপতি অভিযোগ জানিয়ে বলেন আজ সারাদিন নির্বাচনের নামে যে রক্তঝরা দিন দেখল রাজ্যবাসি। তা এই মুখ্যমন্ত্রীর নাম ইতিহাসের পাতায় একটি কালো অধ্যায় হিসেবে পরিচিতি পাবে।তিনি রাজ্য নির্বাচন কমিশনার কে অপদার্থ দলদাস ও মেরুদনহীন প্রানীবলে উল্লেখ করে বলেন রাজ্যে এরকম প্রশাসনিক আধিকারিকের আসনকে তিনি কলংকময় ইতিহাস হিসেবে চিনহিত হয়ে থাকবেন।কেন্দ্রীয় বাহিনীকে যেমন ব্যবহার করেন নি, তেমনি নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্বেও সিভিক কে ভোটের কাজে নামিয়েছেন। রাজ্য প্রশাসন এই কলংকময় ভোটপর্বের জন্য দায়ি এই দাবি তুলে রাজ্য বিজেপির সভাপতি মুখ্যমন্ত্রীর পদত্যাগের পাশাপাশি ও তার ভাইপোকে দায়ি করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here