বালুরঘাটে রামনবমী মহা উৎসাহে পালন করলেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি তথা বালুরঘাট লোকসভা আসনের প্রার্থী সুকান্ত মজুমদার।

0
17

নিজস্ব সংবাদদাতা, বালুরঘাটঃ – প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী গতকাল এই বালুরঘাটে সভা করতে এসে রামনবমী উদযাপন যথাযথ মর্যাদার সাথে পালন করবার কথা বলেছিলেন। সেদিকে লক্ষ রেখেই আজ বালুরঘাটে রামনবমী মহা উৎসাহে পালন করলেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি তথা বালুরঘাট লোকসভা আসনের প্রার্থী সুকান্ত মজুমদার।প্রায় ৫০০ব্ছর পর এবার প্রথম অযোধ্যায় নয়া রামমন্দিরে রামলালার প্রান প্রতিষ্ঠাকে কেন্দ্র করে ২০২৪ এর শুরু থেকেই দেশভর রামলালার আবেগ ও উচ্ছাসে ভাসছিল দেশ। তাই এবার যে রামনবমী সবার কাছে একটা আলাদা উৎসবে পরিনত হবে তা আর আলাদা করে বলে দেওয়ার নয়। তার উপর গতকালকেই খোদ মোদী যেখানে রামনবমী পালনের ডাক দিয়ে গেছেন। সেক্ষেত্রে বালুরঘাটে বিজেপি মহলে আলাদা উৎসাহ ও উদ্দিপনা লক্ষ করার মত। আজ সকালে সুকান্তের নেতৃত্বে বিজেপির নেতা কর্মী সমর্থকেরা বালুরঘাট শহরের সাড়ে তিন নম্বর মোড়ে জড় হয়ে মিছিল শুরু করে। রামনবমীর সেই মিছিল শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপুর্ন রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় পথ চলতি মানুষের উদ্দেশ্যে ফুলের পাপড়ি ছুড়ে রামনবমী পালন করতে দেখা যায় সুকান্ত সহ অনান্য নেতা নেত্রীদের। একেই আগামী ২৬ এপ্রিল বালুরঘাটে দ্বীতিয় দফায় ভোট। সুতরাং রামনবমীর আবেগকে কাজে লাগাতে চেষ্টার কোন কসুর বাকি রাখতে নারাজ সুকান্ত ওব্বিজেপি দল।
যদিও সুকান্ত জানান, , হিন্দু ধর্মের মানুষরা তো আজ রামনবমী পালন করছেই, এমনকি অন্য ধর্মের মানুষরাও আজ রামনবমীতে সামিল হয়েছে। তিনি বলেন রাম সবার। সবাই রামনবমী শ্রদ্ধার সাথে পালন করে। এবার প্রথম অযোধ্যায় রামনবমীতে রামলালার দর্শন পাওয়া যাবে, যা সবার কাছে একটু আলাদা আবেগের হাওয়া বইছে।তার অভিযোগ কিছু রাজনৈতিক নেতা নেত্রী কিছু মানুষের মধ্যে ভোট ব্যাংক বজায় রাখতে রামকে নিয়ে ভয় দেখায়। কিন্তু রাম সবার কাছে শ্রদ্ধার ও পুজিত।মুখ্যমন্ত্রী বার বার বলছেন ওরা দাংগা করবে, এপ্রসংগে সুকান্তর বক্তব্য মুখ্যমন্ত্রী ওরা বলতে বোধহয় হিন্দুদের বুঝিয়েছেন, সুকান্তর দাবি মুখ্যমন্ত্রীকে কিন্তু বুঝতে হবে হিন্দুরা কখনই দাংগা করে না। তিনি আরো বলেন আমাদের কাছে এরকম কোন খবর নেই যে হিন্দুদের মিছিল থেকে কখনও কোন অন্যধর্মের প্রতিষ্ঠানের উপর আঘাত করা হয়ে থাকে না।