ক্ষীর খেয়ে নিচ্ছে ফড়েরা, ভোটের মুখে পানের নির্ধারিত দাম নিয়ে দাবি তুলল চাষিরা।

0
20

পূর্ব মেদিনীপুর, নিজস্ব সংবাদদাতা :- পান চাষের সঙ্গে যুক্ত জেলার কৃষকেরা চাইছে সরকার পানের ন্যূনতম মূল্য নির্ধারণ করুক। পূর্ব মেদিনীপুর জেলার অন্যতম অর্থকারী ফসল পান। ধানের মত পান পূর্ব মেদিনীপুর জেলার প্রায় প্রতিটি ব্লকেই চাষ হয়। জেলার পাঁশকুড়া ও কোলাঘাট ব্লক বাদ দিয়ে বাকি ২৩ টি ব্লকের প্রায় ৬ হাজার ২৫১ হেক্টর জমিতে পান চাষ হয়। কিন্তু পানের কোনও সরকার নির্ধারিত দাম না থাকায় বারবার জেলার পান চাষিরা আর্থিক ক্ষতির মুখ দেখছে। পূর্ব মেদনীপুর জেলার নন্দীগ্রাম থেকে ময়না, কাঁথি, হয়ে তমলুক, শহিদ মাতঙ্গিনী ব্লক থেকে নন্দকুমারের বিস্তীর্ণ এলাকায় পানের চাষ হয়। পান চাষের সঙ্গে যুক্ত এখানকার বহু মানুষ। কিন্তু এই পান চাষের কোনও সরকার নির্ধারিত দাম নেই। এ নিয়ে বহুবার পান চাষের সঙ্গে যুক্ত কৃষকেরা দাবি তুললেও সেই দাবি এখনও পর্যন্ত মান্যতা পায়নি। ফলে ব্যবসায়ী ও ফড়েদের দ্বারা নির্ধারিত মূল্যে পান বিক্রি করতে হয় চাষিদের। তাই এবার লোকসভা ভোটের মুখে পানের সরকার নির্ধারিত ন্যূনতম মূল্য ঠিক করার দাবি তুলেছেন চাষিরা। অনেক সময় দেখা যায় ব্যবসায়ী ও ফড়েরা ইচ্ছামত পানের দাম দেয়। তাতে চাষিদের ক্ষতি হয়। পূর্ব মেদিনীপুর জেলার বিস্তীর্ণ এলাকার পান চাষিদের দাবি, ভোট আসে ভোট যায়, কিন্তু তাঁদের সমস্যা একই থেকে যায়।‌ বর্তমান ব্যবস্থার কারণে বাজারে পানের দাম বেশি থাকলেও চাষিরা তার সুফল পান না। উল্টে তাঁদের কাছ থেকে কম দামে পান কেনে ব্যবসায়ী ও ফড়েরা। ফলে বছরের পর বছর পান চাষ করে ক্ষতির মুখ দেখতে হচ্ছে তাঁদের।‌