ভাষাবাড়ি : বনশ্রী রায় দাস।

0
245

কোথায় আমার বাড়িঘর ,প্রায়ই একথা বলতে ।
যেখানে যখন থাকি সেটা আমার ঘর
জবাবে বলেছি আমি তোমাকে ।
বিরক্তি ভাবে তুমি বলেছিলে
এবার তোমার নিজের ঘর বানাও ।

মৌন হাওয়া তরঙ্গ ঢেউয়ের পায়ে নূপুর হলো
চোখের কোণে ঝিলিক দিল অনন্ত সুরের
ঘর বাঁধার স্বপ্ন ,শৈল্পিক আঙুলের মুদ্রায়
বানাই আমার ঘর জন্ম থেকে জন্মান্তরে ।
গর্ভগৃহে রাখলাম স্বরবর্ণ ব্যঞ্জন বর্ণ, আর
জানালার গরাদে চন্দ্রবিন্দু,দালান থেকে
দরজা বরাবর সূর্যমুখী হাওয়া ,চিলেকোঠায়
কুলুপ এঁটে বসে জিজ্ঞাসা চিহ্ন ।
দেওয়ালের গায়ে শ্বেতপাথর হয়ে
লুটিয়ে পড়ে টগরের হাসি পলাশ-ব্যকরণ
বারান্দায় ধ্যানস্থ বিসর্গ’ এর বেড়া ছুঁয়ে
বেজে যায় চাঁপাতলার হারমোনিয়াম
ঘরের ছাদে খেলা করে আপনমনে শুকতারা । নদীর সন্ধ্যা শোনে আঁচলের পূর্ণচ্ছেদ ।

নির্মাণ সম্পূর্ণ হলে সে ঘর আমার থাকে না
সেখানে বসত করেন আমার ভাষাজননি ,
ইতিহাস , ভূগোল আর প্রেমের ঝুমঝুমি ।
হৃদয়ে ঢেউ তুলে ধ্বনিময় স্রোত
সিংদরজায় হয়তো বা ফুটে উঠতে পারে
ভিমবেটকার কারুশিল্প অথবা
আলতামিরার বিখ্যাত সেই গুহাকারু।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here