লক ডাউন :: উজ্জ্বল সামন্ত।।

0
407

সংসারে গরমমশলা বিলাসিতা,অভাবে উনুনে হাঁড়ি চড়ে না ,
নুন আনতে পান্তা ফুরোয় যাদের ,তারা লকডাউন বোঝে না,
গরম ভাতের গন্ধটা নাকে পেলেই, ওদের স্বপ্নপূরণ ,
খিদেয় পেটের নাড়ির মোচড়ে, নাভিশ্বাসে অগ্নির দহন ।

হ্যাঁ, ওরা গতর খাটিয়ে খায়, হাত পাতে না ভিক্ষের
লকডাউনে সেজে গুজে বারান্দায়, যদি আসে খদ্দের ,
ভুখা পেটে কাম জাগে না ,তবুও আছে কোনমতে বেঁচে
লকডাউন শেষে, যদি খিদে হার মেনে জীর্ণ দেহটা জেতে।

হকারদের কপালে চিন্তার ভাঁজ কি করে চালাবে সংসার,
শিক্ষিত ছেলেটা মুখ লুকিয়ে, লকডাউনে কাজ হারায়।
চড়া মেকাপে সেলফি পোষ্ট করে কেউ কেউ রোজ সোশ্যাল মিডিয়ায়
কেউ বা বিড়িয়ানি, চিকেন, মটনের ফটো তুলে জানায় আহারের বাহার।

কেউ মাস মাহিনা গোনে ঘরে বসে মাস পেরিয়ে বছরভর,
কেউ পিপিই কিট পড়ে, দিন রাত এক করে অসুস্থ বা নিথর,
কেউ খোঁজে কাজ বা যে কোন চাকরি, বাঁচার জন্য এই দুনিয়ায়,
ভ্যাকসিন নিয়েও অনিশ্চিত জীবন, কখনো যদি আসে ডাক?

কেউ অসুস্থ, অসহায়, বাড়ায় না পড়শী সাহায্যের হাত,
অক্সিজেন ওষুধের কালোবাজারি, নজরদার ঘুমায় ,
মৃত্যুর মিছিলে শ্মশানে লাইন, চুল্লির আগুনের নেই বিরাম ,
মনুষ্যত্ব কাঁদে, সহমর্মিতা খোঁজে, বিবেকের দ্বারে আর্তনাদ ।

লকডাউনেই যদি বাঁচে জীবন, বিজ্ঞান, ওষুধ কেন অসহায়?