এক ফোনে টাকা গায়েব!!

0
335

হুগলী, নিজস্ব সংবাদদাতাঃ-এক ফোনে গায়েব হয়ে গেল দশ লাখ টাকা।শ্রীরামপুর চাতরার বাসিন্দা অসীম কুমার নন্দন বেসরকারী সংস্থায় কাজ করতেন।গত বছর আগস্ট মাসে ভি আর এস নেন তিনি।ভি আর এস এর টাকা পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্কের সেভিংস অ্যাকাউন্টে জমা রাখেন।শ্রীরামপুর পিএনবি শাখায় তার অ্যাকাউন্ট রয়েছে।চাকরির সুবাদে কলকাতার স্ট্যান্ডার্ড চাটার্ড ব্যাঙ্কেও তার অ্যাকাউন্ট রয়েছে।অসীম বাবু জানান, গত ২৮ জুলাই বিকাল চারটের সময় তাকে ফোন করে বলা হয় স্ট্যান্ডার্ড ব্যাঙ্কের মিনিমাম ব্যালেন্স কমে গেছে।টাকা রাখতে হবে নয়ত নমিনি ব্যাঙ্কের পাশবই নম্বর দিতে হবে।তিনি পিএনবি ও ইউকো ব্যাঙ্কের সেভিংস অ্যাকাউন্ট নম্বর দিয়ে দেন।এরপরে তার কাছে একটা ওটিপি আসে সেটা দিয়ে দিতেই টাকা উঠতে শুরু করে।রাত দুটো পর্যন্ত দফায় দফায় দশ লক্ষ টাকা সরিয়ে নেয় জালিয়াত।তার ইউকো ব্যাঙ্কের অ্যাকাউন্ট থেকেও পঞ্চাশ হাজার টাকা তুলে নেয়।যে টাকা ফিক্সড ডিপোজিট করে বাকি দিনগুলো চালিয়ে দেবেন ভেবেছিলেন সেই টাকা এই ভাবে চলে যাবে ভেবে উঠতে পারছেন না অসীম বাবু।করোনা হওয়ায় ব্যাঙ্কে যেতে পারেন নি অনেক দিন তাই টাকা সেভিংস অ্যাকাউন্টেই পরেছিল।তিনি স্মার্ট ফোন ব্যবহার করেন না,নেট ব্যাঙ্কিং বা ডিজিটাল লেনদেনও করেন না তাও তার অ্যাকাউন্ট থেকে নেট ব্যাঙ্কিং এর মাধ্যমে টাকা তুলে নিয়েছে জালিয়াতরা।ব্যাঙ্কে গিয়ে জানতে পারেন তার নেট ব্যাঙ্কিং চালু ছিল।চন্দননগর পুলিশ কমিশনারেটের সাইবার ক্রাইম বিভাগে অভিযোগ জানিয়েছেন অসীম বাবু।এর আগে এই ধরনের অনেক প্রতারিতের টাকা উদ্ধার করে দিয়েছে সাইবার সেল।এখন সেই সেলের দিকেই তাকিয়ে বসে রয়েছেন অসীম বাবু ও তার পরিবার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here