অভিমানে একটি পরিত্যক্ত ঘরে একাই জীবন যাপন করছেন প্রায় ৭০ ছুঁই, ছুঁই মালদার, ঘনশ্যাম মন্ডল।

0
155

নিজস্ব সংবাদদাতা, মালদাঃ- মালদহের রতুয়ায় পরিবারের সাথে অভিমান,তার কারণে প্রায় কুড়ি বছর ধরে ,একটি পরিত্যক্ত ঘরে একাই জীবন যাপন করছেন প্রায় ৭০ ছুঁই, ছুঁই মালদার, ঘনশ্যাম মন্ডল।

আর চারটি সাধারণ পরিবারের মতো ঘনশ্যামের ও রয়েছে পরিবার পরিবারের রয়েছে ছেলে বৌমা ,মেয়ে জামাই কিন্তু ঘনশ্যাম এর শাফ কথা আর যতদিন জীবিত আছি আমি একাই থাকতে চাই।

সেখান থেকে
,একটি পরিত্যক্ত ঘরে একাই জীবন যাপন করছেন ৭০ ছুঁই, ছুঁই এই বৃদ্ধা ছাদ ভাঙ্গা চুড়া,জানলায় নেই কপাট এই শীতের সময় কনকনে বাতাস জানলা দিয়ে ঢোকে,সেই ঘরেই কোন মতন জীবন যাপন করছেন ,খাওয়ার জন্য পড়ে পাড়ের প্রতীক্ষায় থাকেন তিনি কেউ দু’মুঠো খাবার দিয়ে গেলে পেটে পড়ে খাওয়ার ,তবে একাধিক দিন নিজের হাতেই কোন মতন কাঁচাপাকা রান্না করে খান তিনি,

এমন এই রিদয়ে মোচড়ানো ছবি ধরা পড়েছে মালদা জেলার রতুয়া ১নং ব্লকের শামসীর ছাবিল পাড়ার ঘনশ্যাম মন্ডলের।

চারিদিকে ঝোপঝাড়ে জঙ্গল তার মাঝে পরিতক্ত একটি ঘর সাপ ক্ষোভ না, থাক আর নেই,সেই ঘরেই ছেলে বৌমা থেকে বিতাড়িত হয়ে,বেঁচে থাকার কঠিন বাকি দিন গুজরান করছেন ঘনশ্যাম মন্ডল।
চলাফেরা ও সেরকম করতে পারেন না ঘনশ্যাম,বাইরে কোন প্রয়োজনীয় কাজে পেরোলে তার পথেরসাথী একমাত্র ভাঙাচোরা একটি হাতটানা ট্রাইসাইকেল সেটাও এখন প্রায় অকেজো অবস্থায় পড়ে রয়েছে।

চোখের জলে কাতর আবেদন সেই অসহায় বৃদ্ধের ঘনশ্যাম মন্ডলের এখুন একটাই চাওয়া ,তার ভাঙাচোরা হাতটা না সাইকেলের বদলে ,যদি নতুন একটি ট্রাইসাইকেল পেতেন তাহলে তার জীবনের বাকি দিন টা ,মানুষের দুয়ারে দুয়ারে গিয়ে দু বেলা দুট খাবার জোগাড় করতে পারতেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here